ভারতের উত্তর প্রদেশে কথিত ‘লাভ জিহাদ’ বিরোধী অধ্যাদেশ কার্যকর করলো রাজ্যপাল

0
745
ভারতের উত্তর প্রদেশে কথিত ‘লাভ জিহাদ’ বিরোধী অধ্যাদেশ কার্যকর করলো রাজ্যপাল

ভারতে বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশে ‘বেআইনি ধর্ম পরিবর্তন অধ্যাদেশ’ জারি হয়েছে। একেই কথিত ‘লাভ জিহাদ’ বিরোধী অধ্যাদেশ বলা হচ্ছে। (শনিবার) রাজ্যপাল আনন্দীবেন প্যাটেল এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশ জারি করেছে।

সরকারি সূত্রে বলা হচ্ছে, ধর্মান্তরিত রুখতে ওই অধ্যাদেশ আনা হয়েছে। তবে আসল উদ্দেশ্য হচ্ছে, কথিত ‘লাভ জিহাদের ভূয়া অভিযোগ তুলে মুসলিমদেরকে আইনের জালে ফাঁসানো।

আগেই ‘লাভ জিহাদ’ রুখতে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বিল আনার কথা জানিয়েছিল সন্ত্রাসী দল বিজেপির ফায়ারব্রান্ড নেতা ও উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। গত (মঙ্গলবার) রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্ধার্থ নাথ সিং জানায়, ধর্মান্তরিত করা রুখতে নয়া অর্ডিন্যান্স জারি করবে সরকার।

অর্ডিন্যান্সে বলা হয়েছে, জোর করে বিয়ের নামে ধর্ম পরিবর্তন করলে ১ থেকে ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। নাবালিকা এবং তফসিলি জাতি-উপজাতি নারীকে ধর্মান্তর করলে ৩/১০ বছরের কারাদণ্ড এবং ২৫ হাজার টাকার জরিমানা করা হবে। গণ ধর্মান্তরের ক্ষেত্রে একই মেয়াদের কারাবাস এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানার সাজা হবে।

ভারতে সাধারণত উগ্রহিন্দুত্ববাদী বিভিন্ন সংগঠন কথিত ‘লাভ জিহাদ’ শব্দ ব্যবহার করে প্রচারণা চালায়। তাদের দাবি, মুসলিম ছেলেরা হিন্দু মেয়েদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করে কৌশলে ধর্মান্তর করায়। প্রকৃতপক্ষে, লাভ জিহাদ’বলতে কিছুই নেই। মূলত এটি মুসলিম যুবকদের হত্যা কিংবা নিপীড়ন চালানোর হাতিয়ার হিসেবে ব্যাবহার করছে হিন্দুত্ববাদীরা। আইনেও ‘লাভ জিহাদ’ -এর অস্তিত্ব নেই। কিন্তু তা সত্ত্বেও থেমে নেই হিন্দুত্ববাদী দলবল।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন