নিজেদের মধ্যেই আ.লীগের দুই পক্ষের বিশৃংখলায় ১৪৪ ধারা জারি

0
420
নিজেদের মধ্যেই আ.লীগের দুই পক্ষের বিশৃংখলায় ১৪৪ ধারা জারি

বগুড়ার সোনাতলা উপজেলায় একই স্থানে ও একই সময়ে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সমাবেশ ডাকায় সহিংসতার আশঙ্কায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।

সোমবার সকাল আটটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত উপজেলার দিগদাইর ইউনিয়নের মহিচরণ বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আজ সকাল ১০টায় সমাবেশের ডাক দেওয়া হয়েছিল।

সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া আফরিন প্রথম আলোকে বলেন, ১৩ মার্চ সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। এই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে উপজেলার মহিচরণ বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে আজ দিগদাইড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ব্যানারে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ অহবান করা হয়। কর্মসূচি থেকে সরে আসার জন্য উভয় পক্ষকে বোঝানো হয়েছে। এতে তারা রাজি হয়নি। এ কারণে বিশৃঙ্খলা এড়াতে আজ সকাল আটটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত মহিচরণ বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে ও আশপাশ এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে সব ধরনে সভা, সমাবেশ ও গণজমায়েত নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী বলেন, পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। দুই পক্ষের কাউকে সমাবেশস্থলে আসতে দেওয়া হয়নি।

উপজেলা আওয়ামী লীগের বিবাদমান দুই পক্ষের মধ্যে এক পক্ষে নেতৃত্বে দিচ্ছেন বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) দলীয় সাংসদ সাহাদারা মান্নানের ছোট ভাই ও সোনাতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিনহাদুজ্জামান লীটন। তিনি সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদপ্রত্যাশী।

অপর পক্ষে আছেন সাংসদ সাহাদারা মান্নানের আরেক ভাই সারিয়াকান্দি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ সাইদুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আছালত জামান। তাঁরাও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রত্যাশী।

এ বিষয়ে জানার জন্য সাংসদ সাহাদারা মান্নানের মুঠোফোনে কল করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। প্রথম আলো

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন