শত শত ইহুদি সপরিবারে ইরানে পালাচ্ছে : কারণ অজ্ঞাত!

2
1069
শত শত ইহুদি সপরিবারে ইরানে পালাচ্ছে : কারণ অজ্ঞাত!

চরমপন্থী ইহুদিদের কয়েক ডজন পরিবারের শত শত সদস্যকে ইরানে পালনোর সময় আটক করেছে ইসরাইলের সেনাবাহিনী।

গত ১৫ অক্টোবর, মিডলইস্ট মনিটর এক প্রতিবেদনে জানায়, এসব ইহুদিরা ইরানের কাছে আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেছিল। এর পর-ই তারা ইরানে পালাচ্ছিল। এ অবস্থায় তাদের বাধা দিল ইসরাইলের সেনাবাহিনী।

ইসরাইলের সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইসরায়েলে বিষয়টি উঠে আসে। বলা হয় ইসরাইল এবং যুক্তরাষ্ট্র থেকে একটি চরমপন্থী ইহুদি গোষ্ঠী ইরানে স্থায়ীভাবে বসবাসের লক্ষে যেতে চাচ্ছে। তাদের বাধা দিতে কাজ করছে ইসরাইল এবং আমেরিকা।

সংবাদ মাধ্যমটিতে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে মার্কিন ফেডারেল আদালতে উপস্থাপিত একটি নথিতে দেখা গেছে, হাসিদিক সম্প্রদায়ের ইহুদি নেতারা ইরানে আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেছে এবং ইরানের সর্বোচ্চ শিয়া নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির প্রতি আনুগত্যের শপথ দিয়েছে।

ইসরাইলি সংবাদমাধ্যম ইয়েনেট নিউজ জানায়, ইসরাইলের গোয়াতেমালায় বসবাসকারী শত শত ইহুদি পরিবার ইরানে যাওয়ার চেষ্টারত অবস্থায় বিমানবন্দরে আটকে দেয়া হয় । মাঝে মধ্যে তাদের কুর্দিস্তান-ইরান সীমান্তে দেখা যায়। এ এলাকা থেকে অনেক ইহুদি দলকে আটক করা হয়েছে। যাদের আটক করা হয়েছে তাদের অনেকেই আমেরিকান নাগরিক।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পালিয়ে যেতে আগ্রহী ইহুদিদের আত্মীয়রা ইসরাইল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছে, সরকার যেন তাদের আত্মীয়দের চলে যাওয়া থেকে বিরত রাখে।

এ পর্যন্ত কতজন ইহুদি ইরানে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে এর সটিক হিসেব সংবাদমাধ্যমগুলোয় দেয়া হয়নি। তবে মনে করা হচ্ছে অসংখ্য কট্টরপন্থী ইহুদি পরিবার ইরানে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।

ঠিক কী কারণে ইহুদিরা আমেরিকা ও ইসরাইল ছেড়ে ইরানে পালাচ্ছে, এ বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে উঠে না আসলেও মুসলিম বিশেষজ্ঞ আলিমরা পবিত্র হাদিসের আলোকে জানিয়েছেন, ইরানের ইস্পাহান বা আস্ফাহান এলাকা থেকে ৭০ হাজার ইহুদি মিথ্যা মসিহ অর্থাৎ দাজ্জালের সঙ্গী হবে। এরা হয়তো ঐ দাজ্জালের সমর্থক কাফেলার সঙ্গি হতেই সেখানে যেতে চাচ্ছিল।

কথিত আছে যে, আস্ফাহানি ইহুদিদেরকে ইসরাইল বার বার তাদের দেশে যেতে বললেও তারা ইসরাইলে যায় নি। আর শিয়া ফেরকা সম্পর্কেও অনেক আলেম বলে থাকেন যে, তাদের মূল উতপত্তি ইহুদিদের থেকেই।

অনেক বিশ্লেষক আবার এটাও প্রমাণ করে দেখিয়েছেন যে, আমেরিকা-ইহুদি জোটের সাথে ইরানের প্রায় সব বিরোধই লোক-দেখানো নাটকের মঞ্চায়ন। আর আমেরিকা ইরাক-সিরিয়া সহ যে অঞ্চলেই গেছে, সেখানেই ইরান তথা শিয়ারা তাদের শক্তি বৃদ্ধি করেছে। মুসলিম জাতির ইতিহাস ও বিধর্মীদের সাথে শিয়াদের দহরম-মহরম ও মুসলিম জাতির সাথে গাদ্দারির সাক্ষী দেয় বলে মত অনেক বিশ্লেষকদের।

তথ্যসূত্র :
——–
১। Israel stops hundreds of Jews from moving to Iran as asylum seekers –
https://tinyurl.com/sa4ynuyr

2 মন্তব্যসমূহ

  1. রাসুল সা: বলেন আমর উম্মতের ২ টি দল কে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে ।
    এক দল যারা হিন্দুস্তানে জিহাদ করবে।
    আরেক দল যারা ঈসা ইবনে মারয়াম এর সাতে থাকবে

    ….
    হিন্দু ও ইহুদিদের সাতে জিহাদ আমরাও করব ইনশাআল্লাহ

  2. হুজুর সা. বলেছেন….. ইরানের ইস্পাহান বা আস্ফাহান এলাকা থেকে ৭০ হাজার ইহুদি মিথ্যা মসিহ অর্থাৎ দাজ্জালের সঙ্গী হবে। এরা হয়তো ঐ দাজ্জালের সমর্থক কাফেলার সঙ্গি হতেই সেখানে যেতে চাচ্ছিল।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন