মুখোশ উন্মোচন : ‘বন্ধু’ রাষ্ট্রের ইহুদিদের উপর ফিলিস্তিনিদের হামলায় চটেছে এরদোয়ান

ত্বহা আলী আদনান

3
1782
মুখোশ উন্মোচন : ‘বন্ধু’ রাষ্ট্রের ইহুদিদের উপর ফিলিস্তিনিদের হামলায় চটেছে এরদোয়ান

অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েলে দখলদার ইহুদিদের উপর গত সপ্তাহে কয়েকটি সফল হামলা চালিয়েছেন ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। আর এই বরকতময় হামলাগুলোর প্রতিক্রিয়ায় ফিলিস্তিনিদের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সেক্যূলার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। সেক্যূলার এই প্রেসিডেন্ট ইহুদিদের পক্ষ নিয়ে ফিলিস্তিনিদের এসব হামলার তীব্র নিন্দাও করেছে।

সম্প্রতি সেক্যূলার রাষ্ট্রটির প্রেসিডেন্টের দেওয়া এক বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয় যে, ইহুদিদের উপর ফিলিস্তিনিদের হামলার পর এরদোয়ান তার ইসরায়েলি (রাষ্ট্রপতি) বন্ধু ‘আইজ্যাক হারজোগের’ সাথে টেলিফোনে কথোপকথন করেছে। এসময় এরদোয়ান সাম্প্রতিক দিনগুলোতে অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েলের বিভিন্ন শহরে ইহুদিদের উপর ফিলিস্তিনিদের বরকতময় হামলাগুলোকে “জঘন্য সন্ত্রাস হামলা” আখ্যা দিয়ে এর তীব্র নিন্দা করে। সেই সাথে হামলায় নিহত দখলদার ইহুদিদের প্রতি সমবেদনা জানায় এবং আহতদের আরোগ্য কামনা করে এরদোয়ান।

বিবৃতি আরও যুক্ত করা হয় যে, টেলিফোনে কথোপকথনের সময় তুরস্ক-ইসরায়েলের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এবং আঞ্চলিক ইস্যু নিয়েও ইসলাম ও মুসলিমের শত্রু এই দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ইসরায়েলি রাষ্ট্রপতি হারজোগের তুরস্ক সফরের সাথে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের গতি বজায় রাখতে চান বলেও জানানো হয়।

এসময় অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট হারজোগ রমজান উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট এরদোগানকে অভিনন্দন জানায়!

উল্লেখ্য যে, সম্প্রতি ফিলিস্তিনিদের ভূমি দখল করে ইহুদি বসতি স্থাপনকারী  ইসরায়েলের সন্ত্রাসী পুলিশদের টার্গেট করে কয়েকটি বীরত্বপূর্ণ হামলা চালিয়েছেন ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। যার ফলশ্রুতিতে গত এক সপ্তাহে মোট ১১ দখলদার ইসরায়েলিকে হত্যা এবং আরও অনেক ইহুদিদের আহত করতে সক্ষম হন প্রতিরোধ যোদ্ধারা।

হামলার বিষয়ে প্রতিরোধ বাহিনীগুলো তাদের বিবৃতিতে জানান যে, বরকতময় এই আক্রমণগুলি “ফিলিস্তিনে দখলদার ইসরায়েলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে একটি বৈধ প্রতিক্রিয়া।”

উল্লেখ্য ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ যোদ্ধারা বারবারই নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করে ইহুদি দখলদারদেরকে পাল্টা হামলার মাধ্যমে দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। তবে বরাবরই তারা স্থানীয় ও বিদেশি স্যেকুলার শাসকদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ বাঁধার মুখে পরেছেন।

মাসজিদ আল-আকসা ও ফিলিস্তিনের পবিত্র ভূমি মুক্ত করতে বরাবরই তাই এই মুখোশধারী শাসকদের মুখোশ উন্মোচন এবং নববি মানহাজ অনুসারে এদের দুঃশাসনের অবসানকল্পে অন্দলন গড়ে তুলতে আহ্বান জানিয়ে আসছেন উম্মাহদরদি উলামাগণ।

তথ্যসূত্র :
——-
1. erdogan condemns ‘heinous terrorist attacks’ in israel
https://tinyurl.com/yntwjbjj

3 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন