গণহত্যার প্রস্তুতি : এবার হিন্দুত্ববাদীদের নতুন টার্গেট ‘হালাল খাদ্য’

2
1323
গণহত্যার প্রস্তুতি : এবার হিন্দুত্ববাদীদের নতুন টার্গেট ‘হালাল খাদ্য’

ভারতে গণহত্যার ক্ষেত্র প্রস্তুত করতে হিন্দুরা আদা-জল খেয়ে লেগেছে। যদিও বিশেষজ্ঞদের মত- ইতিমধ্যে ভারতে মুসলিম গণহত্যা শুরু হয়ে গেছে, তবে ব্যাপক পরিসরে মুসলিম গণহত্যায় সকল শ্রেণীর হিন্দুদেরকে শামিল করার চূড়ান্ত প্রস্তুতি এখন তারা সম্পন্ন করছে দ্রুততার সাথে।

এই লক্ষ্যে হিন্দুত্ববাদীরা একের পর এক ইস্যু তৈরি করছে, মুসলিমদের বিভিন্ন ধর্মীয় বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে, যাতে করে মুসলিমদের ক্ষেপীয়ে তুলে তাদের উপর গণহত্যা চালানোর অজুহাত তৈরি করা যায়; এবং সেই অজুহাতকে সর্বমহলে ন্যূনতম গ্রহণযোগ্য করে তোলা যায়।

একে একে কথিত গো-রক্ষা, এন.আর.সি, সি.এ.এ, ধারা ৩৭০ বাতিল, অযোধ্যায় রাম মন্দির, জুমার নামাজে বাধা, অর্থনৈতিক বয়কট, বাংলাদেশে কল্পিত হিন্দু নির্যাতনের কাহিনী, অখণ্ড ভারত প্রতিষ্ঠা, ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্র বানানোর শপথ এবং অতি সম্প্রতি হিজাব ইস্যুর পর হিন্দুত্ববাদীরা এবার সামনে এনেছে হালাল খাদ্য নিষিদ্ধ করার ইস্যু।

উল্লেখ্য, মুসলিমরা অত্যন্ত বিজ্ঞানসম্মতভাবে ও মানবিক উপায়ে পশু জবাই ও হালাল খাদ্য ভক্ষন করে থাকেন। আর এখন এই হালাল খাদ্য গ্রহণেও বাধা সৃষ্টি করছে উগ্র হিন্দুরা।

সম্প্রতি সোশ্যাল মেদিয়ায় এমন বেশ কিছু ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে যে, ভারতের বিভিন্ন এলাকায় বজরং দলের মতো উগ্র হিন্দু সংগঠনের কর্মীরা বিভিন্ন মুসলিম ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরকে শাসাচ্ছে। এবং তাদেরকে হালাল খাদ্য বিক্রি বন্ধের হুমকি দিচ্ছে। তারা এমনকি ভারতজুড়ে হালাল খাদ্য প্রস্তুতকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে বয়কট করার আহব্বানও জানিয়েছে।

চিকমাগালুর শহরের এমএলএ রবি হিন্দুদেরকে হালাল খাদ্য বয়কট করার আহ্বান জানিয়ে বলেছে যে, হিন্দুরা যেন ‘অর্থনৈতিক জিহাদ’এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়।

গাদারওয়ারার এমপি উগ্র হিন্দুদের নিয়ে মিছিল করেছে ভারতজুড়ে হালাল খাদ্য ও মাংস বিক্রি বন্ধ করার জন্য। মিছিল থেকে মুসলিমদের হুমকিও দেওয়া হয়।

আর কর্ণাটকএর এক মহিলা মন্ত্রী শশিকলা উগ্রবাদী বজরং দলের এই হালাল খাদ্য ও মাংস বন্ধের কর্মসূচীতে পূর্ণ সমর্থন ব্যক্ত করেছে।

ভারতজুড়ে উগ্রু হিন্দুদের এই ”হালাল খাদ্য বয়কট কর্মসূচী” বাস্তবায়নে তারা স্থানে স্থানে ক্ষুদ্র ব্যবসায়িদেরকে মারধরও করছে।

অথচ যদি এই হালাল খাদ্য শিল্পের আর্থিক দিকও যদি বিবেচনা করা হয়, ততেও দেখা যাবে যে, এমন হস্তক্ষেপের ফলে ভারত সহ গোটা অঞ্চলেই অর্থনৈতিক প্রভাব পরতে পারে। কারণ বর্তমান বিশ্বে হালাল পণ্যের বাজার ৩.৬ ট্রিলিয়ন ডলার, যা কিনা ভারতের জিডিপি’র চেয়ে আকারে বড়; আর এই ব্যবসা প্রতি বছর ৬% হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তাছাড়া ভারতে যতগুলো হালাল খাদ্য প্রস্তুত ও বিতরনের কোম্পানি আছে, সেগুলর বেশিরভাগের মালিকানায় হিন্দু ধর্মাবলম্বিরা। বিজেপি ও আরএসএস-এর অনেক নেতারও হালাল খাদ্য কোম্পানি এমনকি গরুর মাংস প্রক্রিয়াজাতকরণ কোম্পানির মালিকানাও রয়েছে। এসকল কোম্পানিই বন্ধ করে দিতে হবে ভারতজুড়ে যদি হিন্দুত্ববাদীরা এই ‘হালাল খাদ্য’ বন্ধ করার মিশন জারি রাখে।

এভাবেই বিনা উস্কানিতে হিন্দু উগ্র নেতা-কর্মীরা একে একে মুসলিমদের সকল বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে যাচ্ছে, যেন গণহত্যা শুরু করার মতো পরিবেশ তৈরি করে তা অতি দ্রুত বাস্তবায়ন করা যায়। এমন পরিস্থিতিতে মুসলিমদেরকে তাদের দ্বীন শক্তভাবে আঁকড়ে ধরতে এবং নববী মানহাজ অনুসারে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পরামর্শ দিয়েছেন বিজ্ঞ ইসলামি চিন্তাবীদ ও হক্কানি উলামায়ে কেরাম।


প্রতিবেদক :   আব্দুল্লাহ বিন নজর


তথ্যসূত্র :

1. BJP MLA from Chikmagalur city wants Hindus to boycott Halal products & wants them to ‘fight unitedly against Economy Jihad
https://tinyurl.com/5x5r93te

2. Hindu extremists barged into a hotel and threatened hotel staff not to serve Halal good. They also attacked a Muslim customer for eating halal food.
https://tinyurl.com/55jep2uc

3. Hindu extremists demanding a ban on the sale of meat during Navratri (a Hindu festival). Far right Hindutva outfits are targeting Muslim meat sellers and hotel owners across the country.
https://tinyurl.com/mr39v8c3

4.  Karnataka Muzrai Minister Shashikala Jolle backs campaign of Bajrangdal against Halal meat
https://tinyurl.com/2p8batzy

5. If they stop producing Halal Products the companies will have to shut down and all those who want to boycott would in the street begging.
https://tinyurl.com/yddwdskt

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন