কর্ণাটকে এবার টুপি পরায় মুসলিম ছাত্রদের পিটিয়েছে হিন্দুত্ববাদী পুলিশ

উসামা মাহমুদ

0
128

ভারতে চারিদিকে শুধুই মুসলিম বিদ্বেষের আগুন জ্বলছে, চলছে মুসলিম গণহত্যার চূড়ান্ত প্রস্তুতি। আর সেই আগুনে নিয়মিত ঘি ঢেলে যাচ্ছে সাধু সন্ন্যাসীর নামধারী উগ্র হিন্দু সন্ত্রাসী ধর্মগুরু, হিন্দুত্ববাদী নেতা নেত্রী ও পুলিশ প্রশাসন।

এবার টুপি পরার কারণে হিন্দুত্ববাদীদের ধারাবাহিক মুসলিম বিদ্বেষের শিকার হয়েছেন কলেজের মুসলিম শিক্ষার্থীরা। ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের তেরদলের একটি সরকারি ডিগ্রি কলেজে। সে কলেজের অধ্যক্ষ এবং পুলিশের একজন উপ-পরিদর্শক সহ সাতজন মুসলিম শিক্ষার্থীদের টুপি পরায় মারধর করে।

এ নিয়ে তেরাদল সরকারি ডিগ্রি কলেজের ১৯ বছর বয়সী ছাত্র নাভিদ হাসানসাব থারথারি থানায় একটি ডায়েরী করেন। পুলিশ সাব-ইন্সপেক্টর এবং অন্য পাঁচজন পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে ২৪ মে একটি মামলাও দায়ের করা হয়। মামলায় থারথারি বলেন যে, তিনি টুপি পরে কলেজে গিয়েছিলেন। কিন্তু কলেজের অধ্যক্ষ তাঁকে প্রবেশ করতে নিষেধ করে। যদিও কলেজের অভ্যন্তরে টুপি ব্যবহারে বিধি নিষেধের জন্য কোনও সরকারী আদেশ নেই। তবু শুধু মুসলিম হওয়ায় তাদের সাথে এমন করা হয়েছে।। যেহেতু এখানে ভিক্টিম মুসলিম, তাই বরাবরের মতোই মিডিয়া, তথাকথিত সুশীল, প্রগতিশীলরা চুপ হয়ে আছে!


তথ্যসূত্র:
—–
1.Karnataka: Muslim college student beaten up for ‘wearing skull cap’, case filed
https://tinyurl.com/2p9a3v7k

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন