সন্ত্রাসী মার্কিন পুলিশের বর্বরতায় মুসলিম যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু

ইউসুফ আল-হাসান

0
381

আবারও বর্বর আমেরিকার হিংসাত্মক কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করলো বিশ্ব। দেশটির ওকলন শহরে হাদি আবুআতেলা নামক এক মুসলিম যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে আমেরিকান পুলিশ সদস্যরা। গত ২৯ জুলাই এ ঘটনা ঘটে।

বিবরণে জানা যায়, ঐ দিন পুলিশ কর্মকর্তারা হাদি আবুআতেলার গাড়ি তল্লাশি করার সময় তিনি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে ধাওয়া করে ধরে ফেলে। এরপর তাকে মাটিতে ফেলে জাপটে ধরে মুখে উপর্যুপরি ঘুষি মারতে থাকে। কয়েকজন পুলিশ সদস্যের নির্মম মারধরের ফলে গুরুতর আহত হলে হাসপাতালে নেয়ার পর মৃত্যু হয় তার।

ঘটনার সময় এক নারী নিজ গাড়ির ভেতর থেকে ভিডিও করে ছেড়ে দেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। নতুবা পুলিশের পক্ষ থেকে মিথ্যা নাটক সাজিয়ে নিহত যুবককেই ফাঁসানো হত। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই সমালোচনা করে বলছেন যে, গ্রেফতারের পর থানায় না নিয়ে এভাবে পিটিয়ে খুন করে ইসলামবিদ্বেষী মনোভাবের পরিচয় দিয়েছে সন্ত্রাসী আমেরিকা।

প্রায়ই আমেরিকান নাগরিক ও পুলিশের হাতে বর্ণবৈষম্যের স্বীকার হতে হন কৃষ্ণাঙ্গ ও মুসলিমরা। মার্কিন পুলিশের হাতে বর্ণবৈষম্যের স্বীকার হয়ে প্রতি বছর অন্তত এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়। এবং এসব ঘটনায় একজন আমেরিকান নাগরিকেরও উল্লেখযোগ্য কোন বিচার হয়নি। যা স্পষ্ট মানবাধিকার লঙ্ঘন।

এরপরও আমেরিকা মানবতা ও মানবাধিকারের স্লোগান তুলে ধোকা দিয়ে যাচ্ছে বিশ্ববাসীকে। বিশ্বকে কথিত সন্ত্রাসবাদের হাত থেকে রক্ষা করতে হামলা চালিয়েছে ইরাক, সিরিয়া, আফগানিস্তানসহ বিশ্বের অনেক দেশে। হত্যা করা হয়েছে লাখ লাখ নারী-শিশুদের। নিষ্পাপ শিশুদের হত্যা করে কোন মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চায়, এখন তা আর কোরো অজানা নয়।

বিশ্লেষকরা তাই বলছেন, সন্ত্রাসী আমেরিকা ও পশ্চিমাদের মনভুলানো ‘মানবতা’র বাণী শুনে ধকায় পরে থাকার সময় এখন আর মুসলিমদের হাতে নেই। বিশ্বজুড়ে মুসলিমদের উপর অমুসলিমদের দমন-পীড়ন ও অত্যাচারের ব্যবস্থা মুসলিমদের নিজেদেরকেই নিতে হবে; এবং এই মুখোশধারী মানবতার দুশমনদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে বিশ্ববাসীকে সন্ত্রাসমুক্ত পৃথিবী উপহার দেয়ার।



তথ্যসূত্র:

——–
1. Teen hospitalized following violent arrest in Oak Lawn-
https://tinyurl.com/yrwdbdas

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন