ইউপিতে ২৫০ বছরের পুরনো মসজিদে আজান দেওয়ার জন্য মুসলিম যুবক গ্রেপ্তার

- মাহমুদ উল্লাহ্‌

0
227
আযান দেওয়ার প্রতীকী ছবি
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

গত শনিবার উত্তরপ্রদেশের শামলিতে ২৫০ বছরের পুরনো একটি মসজিদে ‘আজান’ দেওয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে গৌসগড়ের এক গ্রাম প্রধানের প্রতিনিধি নীরজ কুমার বিভিন্ন ধারায় মামলা করে। এই প্রেক্ষিতে উমর কুরেশি নামের এক মুসলিম যুবককে গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠায় ইউপি পুলিশ।

পুলিশ দাবি করেছে যে কুরেশি, ২০-এর দশকের একটি স্থাপনায় শুক্রবার গিয়ে প্রার্থনা করার চেষ্টা করেছিল, যার ফলে ১৯৪০ সালের ব্রিটিশ আদেশ লঙ্ঘন হয়েছে।

কাঠামোটি আংশিকভাবে ধ্বংসস্তূপে থাকলেও আজও দাঁড়িয়ে আছে। মুসলমানরা এটিকে মুঘল যুগের মসজিদ বলে উল্লেখ করে, অন্যদিকে হিন্দুরা এটিকে মানোহর রাজাদের দূর্গ বলে দাবি করে।

উল্লেখ্য, ১৯৪০ সালে জাসমাউরের হিন্দু রাজা ও ব্রিটিশ ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে আয়োজিত এক পঞ্চায়েতে একটি সমঝোতা হয়, এবং সেই প্রেক্ষিতে স্থাপনাটিতে হিন্দু সম্প্রদায়ের যাতায়াতে ও মুসলিম সম্প্রদায়ের ইবাদতের উপর নিষেধাজ্ঞা দেয় ব্রিটিশ সরকার।



 

তথ্যসূত্র:

1. Muslim youth sent to jail for offering ‘azan’ at 250-year-old mosque in UP
http://tinyurl.com/2eyafzcy

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ১৩ জানুয়ারি, ২০২৪
পরবর্তী নিবন্ধরোহিঙ্গা মুসলিম হত্যা: আরাকান আর্মি ও সামরিক জান্তার অভিন্ন নীতি!