হামাস প্রধানের সঙ্গে আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফোনালাপ

0
736

পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের দিনেও ফিলিস্তিনে থেমে নেই ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের গণহত্যা। গত ১০ এপ্রিল বুধবার ঈদ উদযাপনের দিন হামাস প্রধান ইসমাইল হানিয়ার ৩ পুত্রসহ পারিবারিক কয়েকজন সদস্যকে শহীদ করেছে ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীরা। দুঃখজনক এই ঘটনায় সমবেদনা জানিয়েছেন ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মৌলভী আমির খান মুত্তাকী হাফিযাহুল্লাহ। তিনি ফোনালাপের মাধ্যমে জনাব হানিয়া হাফিযাহুল্লাহর প্রতি গভীর মর্মবেদনা প্রকাশ করেন। শহীদদের আত্মত্যাগ কবুলের জন্য তিনি আল্লাহর কাছে দুয়ার অভিব্যক্তি প্রকাশ করে বলেন, তাদের এই আত্মত্যাগের ফলাফল কখনও বৃথা যাবে না। অবশেষে ইহুদি হানাদারদের কবল থেকে ফিলিস্তিন একদিন মুক্ত হবে। এই ত্যাগের ফলে অচিরেই দৃশ্যমান পরিবর্তন আসবে। ফিলিস্তিনের চূড়ান্ত স্বাধীনতা অর্জনে এই ত্যাগ অবদান রাখবে। জনাব মুত্তাকি হাফিযাহুল্লাহ ফোনালাপে প্রত্যাশাগুলো দৃঢ়ভাবে ব্যক্ত করেন।

জনাব মুত্তাকি হাফিযাহুল্লাহ তাদের এই আত্মত্যাগকে আফগান মুজাহিদদের আত্মত্যাগের সাথে তুলনা করেন। এর বদৌলতে আফগানিস্তান আজ স্বাধীনতা অর্জন করেছে। তিনি ফিলিস্তিনের মুজাহিদ-জনতার প্রতি শুভ কামনা জানান, তাদেরকে জিহাদের পথে অবিচলতা, ধৈর্য ও অধ্যবসায় বজায় রাখার আহ্বান জানান।

প্রতিউত্তরে জনাব ইসমাইল হানিয়া হাফিযাহুল্লাহ ইমারতে ইসলামিয়ার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। শহীদদের আত্মত্যাগ কবুলের জন্য আল্লাহর দরবারে তিনি প্রার্থনা করেন। তিনি আফগান জনগণকে স্বাধীনতা সংগ্রামের অগ্রদূত হিসাবে স্বীকৃতি দেন। পাশাপাশি উভয় জাতির জান-মালের আত্মত্যাগ অচিরেই ইতিবাচক ফলাফল নিয়ে আসবে বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

এছাড়া জনাব হানিয়া ইমারতে ইসলামিয়ার সর্বোচ্চ আমির হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদাহ হাফিযাহুল্লাহর প্রতি শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। আফগানবাসীর জন্য কল্যাণ ও রহমতেরও দু’আ করেন তিনি।


তথ্যসূত্র:
1. Foreign Minister Extends Telephonic Condolences to Hamas Leader on Martyrdom of His Family Members
https://tinyurl.com/4nj52n44

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ১১ এপ্রিল, ২০২৪
পরবর্তী নিবন্ধবুরকিনান জান্তা বাহিনীকে ড্রোন ও অস্ত্র সহায়তা দিচ্ছে তুরস্ক