আফগানিস্তানের খনিজ সম্পদ খাতে দেশী-বিদেশি কোম্পানিসমূহের বিশাল আকারে বিনিয়োগ

0
250

খনিজ সম্পদ, আফগান অর্থনীতিতে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ও মৌলিক একটি খাত। ইমারতে ইসলামিয়া সরকার শুরু থেকেই এই খাতে বিনিয়োগকে উৎসাহিত করে আসছে, গ্রহণ করেছে নানামুখী পদক্ষেপ। সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি খনিজ সম্পদ খাতে বড় পরিসরে বিনিয়োগ করেছে দেশী-বিদেশি একাধিক বিনিয়োগকারী কোম্পানি।

ইমারতে ইসলামিয়ার সরকারের সাথে যৌথ চুক্তির মাধ্যমে ১৫০ টি ক্ষুদ্র ও ৩০ টি বৃহৎ খনিতে বিনিয়োগ করেছে বিভিন্ন কোম্পানি। জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্যানুযায়ী, ক্ষুদ্র খনিগুলোতে দেশীয় বিভিন্ন কোম্পানি বিনিয়োগ করেছে। তাদের বিনিয়োগের সম্মিলিত আর্থিক পরিমাণ ১০ বিলিয়ন আফগানি। অপরদিকে বৃহৎ আকারের খনিগুলোতে চীন, ইরান, তুরস্ক ও কাতারভিত্তিক বিদেশি বেশ কয়েকটি কোম্পানি বিনিয়োগ করেছে। তাদের সর্বমোট বিনিয়োগের পরিমাণ প্রায় ৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বিদেশি কোম্পানিসমূহের বিনিয়োগকৃত খনিসমূহের মধ্যে মূল্যবান ও অতি-মূল্যবান পাথরের খনি বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

খনিসমূহ থেকে আহরিত খনিজ সম্পদ বিদেশে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করছে ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তান। পাশাপাশি খনিগুলোতে বিপুল সংখ্যক আফগান নাগরিকের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্যানুসারে, প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার লোক খনি সংক্রান্ত প্রকল্পগুলোতে বিভিন্ন পদে কর্মরত রয়েছেন। সাম্প্রতিক এই বৃহৎ বিনিয়োগের ফলে তাই আফগান অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকগণ।


তথ্যসূত্র:
1. Major Investments Made in Mining Sector: Ministry
https://tinyurl.com/mwj5f2up

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ১৪ এপ্রিল, ২০২৪
পরবর্তী নিবন্ধবাংলাদেশি যুবককে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী