ফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ২১ মে, ২০২৪

0
48

জায়োনিস্ট ইসরায়েলি বাহিনী উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরে ভয়ানক তাণ্ডব চালাচ্ছে। হাসপাতালে গোলাবারুদ দিয়ে বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে, আবাসিক এলাকাগুলোতে ট্যাংক ও বিমান দিয়ে বোমা হামলা চালাচ্ছে।

গাজায় যুক্তরাষ্ট্র নির্মিত জেটিতে ৫৬৯ টন মানবিক সহায়তা পৌঁছেছে। তবে এখান থেকে এখনও পর্যন্ত কোনো খাবার ক্ষুধার্ত ফিলিস্তিনিদের মাঝে বণ্টন করা হয়নি বলে জানিয়েছে পেন্টাগন।

গাজায় প্রচুর পরিমাণে খাবার না পৌঁছালে দুর্ভিক্ষের মতো অবস্থার সৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি।

পশ্চিম তীর থেকে আরও ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে জায়োনিস্ট ইসরায়েল।

গাজায় জায়োনিস্ট ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন অন্তত ৩৫,৬৪৭ জন ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৭৯,৮৫২ জন ফিলিস্তিনি।

উত্তর গাজার জাবালিয়া ক্যাম্পের মাঝে জায়োনিস্ট বাহিনীর একদল পদাতিক সৈন্যের উপর অ্যান্টি পার্সনেল ডিভাইস বিস্ফোরিত করেছেন আল-কাসসাম ‍মুজাহিদিন। এতে জায়োনিস্ট সৈন্যরা নিহত ও আহত হয়েছে।

উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের পূর্বে ৩টি জায়োনিস্ট মারকাভা ট্যাংকে ইয়াসিন-১০৫ দিয়ে হামলা চালিয়েছেন আল-কাসসাম মুজাহিদিন।

গাজা শহরের দক্ষিণপশ্চিমে জায়োনিস্ট হেডকোয়ার্টারে মর্টারশেল হামলা চালিয়েছেন আল-কাসসাম ব্রিগেড।

উত্তর গাজার তাল আল-জাআতার এলাকায় জায়োনিস্ট স্পেশাল বাহিনী একটি বাড়িতে অবস্থান নিয়েছিল। সেই বাড়িতে একটি দুর্গবিধ্বংসী টিবিজি শেল দিয়ে হামলা চালিয়ে জায়োনিস্ট সৈন্যদের হতাহত করেছেন আল-কাসসাম ব্রিগেড।

উত্তর গাজার তাল আল-জাআতার এলাকায় জায়োনিস্ট বাহিনীর একটি ট্যাংকে গেরিলা অ্যাকশন ডিভাইস দিয়ে হামলা চালিয়েছেন আল-কাসসাম মুজাহিদিন। এছাড়া একই এলাকায় উমার বিন আল-খাত্তাব মসজিদ প্রাঙ্গণে জায়োনিস্ট সৈন্যদের উপর একটি অ্যান্টি পার্সনেল টেলিভিশন ডিভাইস হামলা চালিয়েছেন।

উত্তর গাজার তাল আল-জাআতার এলাকায় উমার বিন আল-খাত্তাব মসজিদ প্রাঙ্গণে জায়োনিস্ট বাহিনীর ৫ সদস্যের উপর হাতবোমা নিক্ষেপ করেছেন আল-কাসসাম মুজাহিদিন। এরপর খুবই কাছ থেকে তাদেরকে শেষ করে দিয়েছেন মুজাহিদগণ।

তাল আল-জাআতার এলাকার আল-বশির মসজিদ প্রাঙ্গণে একদল জায়োনিস্ট সৈন্যের উপর বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরিত করেছেন আল-কাসসাম মুজাহিদিন। এতে জায়োনিস্ট সৈন্যরা হতাহত হয়েছে।

আজজা শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে নেতজারিমে এক জায়োনিস্ট সৈন্যকে স্নাইপিং করেছেন আল-কাসসাম মুজাহিদিন।

জেনিনে জায়োনিস্ট বাহিনীর বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই করেছেন আল-আসিফাহ বাহিনী।

জাবালিয়া ক্যাম্পের পূর্বে জায়োনিস্ট বাহিনীর অবস্থানে বেশ কিছু সংখ্যক আবাবিল বিস্ফোরক প্রজেক্টাইল নিক্ষেপ করেছেন আল-কুদুস ব্রিগেড।

জাবালিয়া ক্যাম্পের সুলতান স্টুডিও এর পেছনে জায়োনিস্ট গাড়ি ও সৈন্যদের উপর যৌথ মর্টারশেল হামলা চালিয়েছেন আল-কুদুস ব্রিগেড এবং আল-আকসা শহীদি ব্রিগেড।

জেনিনে জায়োনিস্ট বাহিনীর বিরুদ্ধে তীব্র যুদ্ধ করেছেন আল-আকসা শহীদি ব্রিগেডের যোদ্ধারাসহ অন্য প্রতিরোধ বাহিনীগুলো।

উত্তর গাজার তাল আল-জাআতার এলাকায় উমার ইবনুল খাত্তাব মসজিদের পাশে আগ্রাসী জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর মেশিনগান এবং আরবিজি রকেট দিয়ে হামলা চালিয়েছেন আল-আকসা শহীদি ব্রিগেড। এতে জায়োনিস্ট সৈন্যরা হতাহত হয়েছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধগাজায় বিরামহীন ধ্বংস আর গণহত্যা, চলছে প্রতিরোধ যুদ্ধও
পরবর্তী নিবন্ধপ্রথমবারের মতো কমান্ডো বাহিনী সেন্টার উদ্বোধন করল আফগানিস্তান