টিকেট থাকার পরেও মাদ্রাসা ছাত্রদের গ্রেফতার করেছে ভারতীয় রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনী

0
141

উত্তরপ্রদেশের কানপুরে বৈধ টিকিট এবং পরিচয়পত্র থাকা সত্ত্বেও মাদ্রাসা ছাত্রদের আটক করেছে রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনী (আরপিএফ)। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে সংখ্যালঘু কমিশন আরপিএফের বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নিয়েছে এবং জড়িত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে।
২৪ এপ্রিল মাদ্রাসা ছাত্রদের গ্রেপ্তার ধর্মীয় বৈষম্য নিয়ে ব্যাপক উদ্বেগের জন্ম দেয়।

কানপুর জেলার ঘটামপুর শহরের মাদ্রাসা ইসলামিয়ার অধ্যক্ষ ছাত্রদের গ্রেপ্তারের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছে। এই সপ্তাহের শুরুতে কমিশনের চেয়ারম্যান আশফাক সাইফি অভিযোগটি শুনেছিলেন। অধ্যক্ষের মতে, বৈধ টিকিট এবং পরিচয়পত্র থাকা সত্ত্বেও রাহবার আলম, সাহেব বাবু, মুহাম্মদ নাফীস সহ বেশ কয়েকজন ছাত্রকে কানপুর রেলস্টেশনে আটক করা হয়েছিল।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে যে, মাদ্রাসা ছুটির পর বিহার থেকে কানপুরে যাতায়াতকারী ছাত্রদের আটক করা হয়। পরে তাদের একটি কিশোর হোমে পাঠানো হয়। ছাত্ররা কিশোর হোমে স্থানান্তরিত হওয়ার আগে খাবার এবং পানি ছাড়াই আরপিএফ হেফাজতে আট ঘন্টা কাটিয়েছে। কিশোর হোমে তাদের অপরাধমূলক আচরণ প্রদর্শন করা শিশুদের সাথে রাখা হয়েছিল।

মাদ্রাসা ইসলামিয়ার অধ্যক্ষ বলেন, আরপিএফের কর্মকাণ্ড তাদের মৌলিক সাংবিধানিক অধিকার লঙ্ঘন করেছে। “বৈধ ভ্রমণ টিকিট এবং পরিচয়পত্র উপস্থাপন করা সত্ত্বেও, রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনী বৈষম্যমূলক পদক্ষেপ নিয়েছে এবং শিক্ষার্থীদের হয়রানি করেছে।”

তিনি আরো বলেন,”কোন যুক্তিসঙ্গত কারণ ছাড়াই শিশুদের কিশোর হোমে রাখা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ক্ষমতার চরম অপব্যবহারের উদাহরণ।”


তথ্যসূত্র:
1.Arrest Of Madrasa Students : UP Minorities Commission Demands Action Against RPF (Muslim Mirror)
https://tinyurl.com/mr28xcn8

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধবুরকিনায় জেএনআইএম এর পৃথক অভিযানে অন্তত ৪২ সেনা সদস্য নিহত
পরবর্তী নিবন্ধগাজায় ইসরায়েলি গণহত্যায় ৬০ ফিলিস্তিনি নিহত