জানা এবং জানানো- উম্মাহর প্রতি একটি দায়বদ্ধতা!

4
747

গত পরশু আসরের পরে গ্রামের এক বড় ভাই ডাক দিলেন। কিছু বিষয় জানতে চান তিনি। শুরু করলেন কাশ্মীর ইস্যু দিয়ে। জানতে চাইলেন গাজওয়াতুল হিন্দ সম্পর্কে। ধীরে ধীরে অনেক আলোচনা হলো। আলোচনায় এলো- সিরিয়া, ইয়েমেন, ফিলিস্তিন, আরাকান, ভারত এবং বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বের নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহর কথা। আলোচনা শেষে বিশ্বপরিস্থিতি সম্পর্কে জানার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করলেন এবং সামনেও অনেক কিছু জানতে চাইবেন বলে নাম্বার নিয়ে গেলেন। তথাকথিত গণমাধ্যমগুলোর মধ্যে মুসলিম উম্মাহর আলোচনা আসে না, এ নিয়ে আফসোস করলেন। নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহর আর্তনাদের কাহিনী হলুদ মিডিয়াগুলো থেকে জানা যায় না। তাই, ভিন্ন কোন মাধ্যম খুঁজছেন তিনি। যেখান থেকে জানতে পারবেন মুসলিমীনের কথা, বুঝতে পারবেন মাজলুমানের ব্যাথা!
কথাগুলো বলার কারণ হলো- বিশ্বে কী ঘটছে, মুসলিম উম্মাহ কী অবস্থায় আছে, সে বিষয়ে নিজে জানা এবং অন্যকে জানানো দরকার। আমার গ্রামের বড় ভাইজানের মত এমন বহু মানুষ আছেন যারা বিশ্ব পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চান। শুনতে চান নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহর ব্যথিত হৃদয়ের আকুতি। কিন্তু, পশ্চিমা হলুদ মিডিয়া তাদের পর্যাপ্ত তথ্য দেয় না। যা কিছুই দেয় তাতেও থাকে মিথ্যার সংমিশ্রণ, থাকে ইসলামের প্রতি বিদ্বেষ আর কাফেরদের স্বার্থ রক্ষার প্রচেষ্টা। তাই, ঐ সকল মুসলিমের কাছে আপনার কিছু দায়বদ্ধতা আছে। ভয়ে বা কৌশলে অন্য কারো কাছ থেকে সত্য গোপন রাখলেও(!)কমপক্ষে এই মানুষগুলোর কাছে সত্য পৌঁছাতে আপনার কার্পণ্য করা উচিত নয়।
মনে রাখতে হবে আপনি মুসলিম উম্মাহর একটি অংশ। উম্মাহর এই ক্রান্তিকালে আপনার অনেক কর্তব্য আছে। তার মধ্যে একটি হলো, সাধ্যমত সারাবিশ্বের মুসলিম উম্মাহর খোঁজখবর রাখার চেষ্টা করা এবং সত্য সংবাদ অপরের কাছে পৌঁছে দেওয়া। মাজলুমের পাশে দাঁড়াতে আপনার এই পদক্ষেপটিও ইনশাআল্লাহ অনেক ফলপ্রসু হবে। কেউ ধনীকে দান করে না, গরীবের দ্বারে সাহায্যের হাত বাড়ায় না। তাই, আপনাকে আগে জানতে হবে কে অভাবগ্রস্ত, কে নির্যাতিত, কে বঞ্চিত। আপনার জানা থাকতে হবে যে, পৃথিবীতে মুসলিমরা নির্যাতিত। তারপরই আপনার  হৃদয় ব্যথিত হবে, মাজলুমের প্রতি সহানুভূতি জন্মাবে। সাহায্য আপনি তখনই করার চেষ্টা করবেন, যখন বুঝবেন- তার সাহায্যের দরকার আছে। তাই, মাজলুম উম্মাহর প্রতিও আপনার একটি দায়বদ্ধতা হলো তাদের খোঁজ-খবর নিজে রাখা এবং অপরের কাছে তা পৌঁছে দেওয়া।

খুশির খবর হলো, আপনাদের আল-ফিরদাউস নিউজ টিমের ভাইয়েরা আল্লাহর অনুগ্রহে এ বিষয়টি উপলব্ধি করতে পেরে সাধ্যমত উম্মাহর কাছে সত্য খবর পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন, আলহামদুলিল্লাহ। তাদের এই প্রচেষ্টা যে প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অল্প তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে, স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে সত্য প্রচারে এরকম সচেষ্ট হওয়াটা আশা জাগায়। আর যদি এটিকে প্লাটফর্ম বানিয়ে এবং এর ভিত্তিকে মজবুত করে বৃহৎ পরিসরে সত্য প্রচারের এ ধারা অব্যাহত রাখা যায়, আশা করি বড় ধরণের সাফল্য আসবে বিইযনিল্লাহ।

আল্লাহ তা’য়ালা ভাইদের জন্য এ কাজ সহজ করুন, তাদের প্রচেষ্টায় বরকত দান করুন, তাদের আমলগুলো কবুল করে নিন। আমাদের সবাইকে সাধ্যমত দ্বীনের খেদমত করার তৌফিক দান করুন।


লেখক: খালিদ মুন্তাসির, সম্পাদক, আল-ফিরদাউস নিউজ

4 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন