এবারে দিল্লির ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালালো মুশরিক বাহিনী

0
284

হিন্দুত্ববাদী মুশরিক মোদি সরকার মুসলিমহীন ভারতে রামরাজত্ব প্রতিষ্ঠার প্রকল্প নিয়ে এগিয়ে চলেছে। সেই লক্ষ্যেই এনআরসির পর এবার মুসলিম বিরোধী নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস করেছে সন্ত্রাসী হিন্দু নেতারা। এই বিলের বিরুদ্ধে তাই ফুঁসে উঠেছেন ভারতের মুসলিম জনসাধারণ। বিভিন্ন জায়গায় মুসলিম বিক্ষোভকারীদের উপর হিংস্রভাবে ঝাঁপিয়ে পড়েছে মুশরিক হিন্দুত্ববাদী পুলিশ বাহিনী।

আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়ের পর দিল্লি এবং কলকাতাতেও মুশরিক হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকারের মুসলিমবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছেন ভারতীয় মুসলিমরা। আর, এসময় নিরস্ত্র নিরীহ অধিকার আদায়ের দাবিতে রাজপথে নামা মুসলিমদের উপর আগ্রাসীভাবে ঝাঁপিয়ে পড়েছে মুশরিক হিন্দুত্ববাদী ভারতীয় পুলিশ বাহিনী। ইতোমধ্যেই আসামে মুশরিক হিন্দুত্ববাদীদের গুলিতে ৩জন নিহত হয়েছেন।

এদিকে, গত বৃহস্পতিবার দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মুসলিম বিরোধী নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে মিছিল বের করলে ভারতের মুশরিক হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী পুলিশ বাহিনী শিক্ষার্থীদের উপর বর্বরোচিত হামলা চালায়। এসময় সন্ত্রাসী পুলিশ বাহিনীর আঘাতে বহু শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়টির মহিলা শিক্ষার্থীদের উপরও মুশরিক বাহিনী নির্যাতন করেছে বলে জানা যায়।

একইভাবে পশ্চিমবঙ্গেও মুসলিম বিরোধী নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন মুসলিমরা। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ হয়েছে বলে জানায় ভারতীয় সংবাদসংস্থাগুলো।

গত মাসকয়েক পূর্বে এনআরসির মাধ্যমে মুসলিমদের উচ্ছেদ, আর নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের মাধ্যমে এনআরসির ফলে বাদ পড়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিয়ে ভারতকে হিন্দুরাজ্য বানানোর স্বপ্ন বাস্তবায়নের কাজ এগিয়ে নিচ্ছে মোদি সরকার। মোদি সরকারের নব্যনীতির ফলে লক্ষ লক্ষ মুসলিম আজ ভারত থেকে বিতাড়িত হওয়ার হুমকিতে রয়েছেন।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন