শাম | রাশিয়ান কুফ্ফার বাহিনীর গণহত্যার শিকার আরো 35 এরও অধিক নিরপরাধ মুসলিম

0
284

গত ২২ জানুয়ারি মঙ্গলবার, সিরিয়ার আলেপ্পো এবং ইদলিবের পল্লী এলাকাগুলোতে গণহত্যা চালিয়েছে কুফ্ফার রাশিয়া ও আসাদের মুরতাদ শিয়া জোটগুলো, এসময় কুফ্ফার ও মুরতাদ বাহিনীগুলো যুদ্ধবিমানের মাধ্যমে বৃষ্টির মত বোমা হামলা চালায়। যার মাধ্যমে হত্যা করা হয়েছে  35 এরও অধিক বেসামরিক ও নিরপরাধ মানুষকে।

সিরিয়ান ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে যে দখলদার রাশিয়া ও মুরতাদ শিয়া সন্ত্রাসীদের যুদ্ধবিমানের বোমা হামলার ফলে বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যুর সংখ্যা ৩৫ এ পৌঁছেছে।

গতকালের বোমা হামলায় আক্রান্তদের বেশিরভাগই পশ্চিমের আলেপ্পোতে নিহত হয়েছিল, সেখানে কাফার গ্রামে নিহত হয়েছেন ৯ জন, যাদের মাঝে ৬ জনই ছিল শিশু। কাফরন গ্রামে নিহত হয়েছেন ৮ জন। এভাবেই আলেপ্পোর ৬টি গ্রামে যুদ্ধবিমানের মাধ্যমে গণহত্যা চালিয়েছে কুফ্ফার ও মুরতাদ বাহিনী। অঞ্চলগুলিতে আবাসিক এলাকা এবং বেসামরিক লোকদের বাড়ি-ঘর ও হাট-বাজার লক্ষ্য করে হামলাগুলো চালানো হয়।

অন্যদিকে ইদলিব প্রদেশের মুর্দবাসা গ্রামে রাশিয়ার দখলদারদের বিমান হামলার ফলে ৯ জন বেসামরিক নাগরিক মারা গিয়েছিলেন এবং আল-বাড়া শহরে আরও দু’জন নিহত হয়েছেন।

সব মিলিয়ে গত এক দিনের গণহত্যায় প্রাণ হারিয়েছেন ৩৫ এরও অধিক নিরাপরাধ সাধারণ সিরায়ান মুসলিম, আহত হয়েছেন আরো কয়েক শত মুসলিম

এই অঞ্চলটিতে সামরিক অভিযান চালানোর পরিকল্পনার পর হতে দখলদার কুফ্ফার রাশিয়া ও মুরতাদ শিয়া সন্ত্রাসী যোদ্ধারা দক্ষিণ ও পশ্চিমের গ্রামাঞ্চল এবং আলেপ্পো সিটির দক্ষিণ ও পূর্বাঞ্চলীয় গ্রামগুলো লক্ষ্য করে ভারী বোমাবর্ষণ শুরু করেছে, যার ফলে কয়েক হাজার নিরপরাধ ও বেসামরিক লোক হতাহত হয়েছেন এবং তুর্কি সীমান্তের দিকে কয়েক লক্ষ লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন