খুলনায় সন্ত্রাসীদের মসজিদ কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত না করায় গ্রামবাসীর উপর গুলিবর্ষণ, নিহত ৩

1
693
খুলনায় সন্ত্রাসীদের মসজিদ কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত না করায় গ্রামবাসীর উপর গুলিবর্ষণ, নিহত ৩

খুলনায় সুদখোর, মাদকব্যবসায়ী, খুনি আওয়ামী বাহিনীর সাবেক নেতাকে মসজিদ কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত না করায় গ্রামবাসীর উপর প্রকাশ্যে গুলিবর্ষণ করেছে সন্ত্রাসী বাহিনী। এ ঘটনায় দুই জন গ্রামবাসী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন এবং পরবর্তীতে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়। এছাড়া, কমপক্ষে ১০জন গ্রামবাসী গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

বিস্তারিত বিবরণে জানা যায়, খুলনা মহানগরীর খান জাহান আলী থানার মশিয়ালীতে একটি আলিয়া মাদ্রাসা মসজিদের কমিটিতে অন্তুর্ভুক্ত হতে চায় এলাকার হাসান আলী মাস্টারের তিন সন্ত্রাসী ছেলে। তারা হলো, খানজাহান আলী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া, খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি জাফরিন ও মিল্টন। এই তিন ভাই এলাকায় আরো আগে থেকেই সন্ত্রাস করে আসছিলো। এজন্য এই সুদখোর, মাদকব্যবসায়ী, খুনি ও লম্পট ভাইদেরকে মাদ্রাসা মসজিদের কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করতে অস্বীকৃতি জানান এলাকাবাসী।

ফলে ঐ তিন সন্ত্রাসী সাবেক আওয়ামী নেতা তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে গতকাল ১৬ই জুলাই বৃহস্পতিবার রাত  সাড়ে আটটার দিকে এলাকাবাসীকে লক্ষ্য করে সরাসরি গুলিবর্ষণ শুরু করে। গুলিতে নজরুল ও গোলাম রসুল নামে দুইজন গ্রামবাসী ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন। পরে তাদেরকে ফুলতলা উপজেলা হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। ঐ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হন কমপক্ষে ১০জন গ্রামবাসী। আহতদেরকে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অন্যদিকে, গ্রামবাসীর উপর সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলার ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকার কয়েকটি মসজিদে ঘোষণা দিয়ে গ্রামবাসীরা একত্রিত হন। এরপর জাকারিয়া, জাফরিন ও মিল্টনের বাড়ি ঘেরাও করে তাতে আগুন ধরিয়ে দেন।

সর্বশেষ জাগো নিউজ২৪ নামক সংবাদমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, সাইফুল নামের ১৮ বছর বয়সী আরেক তরুণ গুরুতর আহতবস্থায় চিকিৎসাকালীন মৃত্যুবরণ করেছেন।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, রাতে গুলিবিদ্ধ সাইফুলের অপারেশন করার সময় সে মারা যায়। তার নাকের পাশে গুলি লেগেছিল। এ নিয়ে ঐ ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিনে।

হামলার পর এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পেরেছে বলে জানা যায়নি।

 

 

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন