আমেরিকানদের প্রতি আল-কায়েদার বার্তা: “তোমাদের উচিত শিক্ষা দেওয়া এখনো বাকি”

7
1435
আমেরিকানদের প্রতি আল-কায়েদার বার্তা: “তোমাদের উচিত শিক্ষা দেওয়া এখনো বাকি”

অতি সম্প্রতি আল-কায়েদার অঙ্গ সংগঠন আনসারুশ শারীয়াহ (Al Qaeda in Arab Peninsula-AQAP) এর মুহতারাম শাইখ খুবাইব আস সুদানি (যিনি ইবরাহিম আল কুসি নামেও সুপরিচিত) হাফিজাহুল্লাহ্ এক ভিডিও বার্তায় আমেরিকানদের কঠোরভাবে হামলার হুঁশিয়ারি প্রদান করেছেন ।

AQAP এর মুখপত্র “আল-মালাহিম” মিডিয়া কর্তৃক প্রকাশিত দীর্ঘ ২০ মিনিটের বেশি সময়ের এই ভিডিও বার্তায় মুহতারাম শায়েখ ফাতহে কাবুল উপলক্ষ্যে আফগান মুসলিমদের হৃদয় নিংড়ানো শুভেচ্ছাও জ্ঞাপন করেন। তিনি অভিনন্দন জানান আমিরুল মু’মিনীন শাইখ হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা (হাফিজাহুল্লাহ) ও ইমারতে ইসলামিয়ার সকল নেতৃবৃন্দকে, উদ্বৃতি দেন মোল্লা মুহাম্মাদ উমর রাহিমাহুল্লাহ এর প্রসিদ্ধ উক্তির: “বুশ ওয়াদা করেছে, সে আমাদের পরাজিত করবে। আর আল্লাহ আমাদের ওয়াদা দিয়েছেন বিজয়ের। আমরা দেখব, কার ওয়াদা সত্য হয়।”

এরপর শায়েখ বলেন, ‘আফগানের ময়দানে পরাজিত হয়েও শিক্ষা হয়নি আমেরিকানদের’। এরপর তিনি বেশ কিছু সময় যাবত কাফেরদের নেতা জো বাইডেন এর বিভিন্ন সময়ের বক্তব্যের ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ করেন। দর্শকদের সামনে তুলে ধরেন আফগান যুদ্ধে আমেরিকার অফুরন্ত খরচের হিসাবখাতার কিয়দাংশ। তিনি বলেন,
“আফগান যুদ্ধে হওয়া জান ও মালের ক্ষতি আমেরিকার জন্য তেমন বড় কোনো ব্যাপার নয়। তাদের জন্য সবচেয়ে মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে বিশ্ব দরবারে আমেরিকার মর্যাদা ধূলায় লুটিয়ে যাওয়া, এর দম্ভ চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যাওয়া এবং (কথিত) সুপারপাওয়ার ও সবচেয়ে শক্তিশালী রাষ্ট্র হিসেবে যে গর্ব আমেরিকার ছিল তা চিরতরে বিলীন হয়ে যাওয়া।”

তিনি আরো বলেন, ” এত ক্ষতি স্বীকারের পরও আমেরিকা বলছে যে শাইখ উসামা বিন লাদেন (রহিমাহুল্লাহ) কে শহীদ করা এবং আফগান থেকে আর কোনো হামলা বা আঘাত না আসার প্রতিশ্রুতি নেবার মাধ্যমে তারা এই যুদ্ধের অভিষ্ট লক্ষ্য অর্জন করতে পেরেছে। এটা সত্যিই আশ্চর্যজনক দাবী। আসলেই কী আমেরিকা কেবল একজন ব্যক্তিকে দুনিয়া থেকে বিদায় করতে আর তালিবান মুজাহিদদের সাথে পরাজিত হয়ে চুক্তি সম্পাদন করার জন্যই এত ক্ষতি স্বীকার করেছে? তারা কি এসব লক্ষ্য অন্য কোনো উপায়ে অর্জন করতে পারত না, যাতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কমানো যেত?”

আমেরিকা ঝুঁকির মুখে আছে:

শায়েখ উসামা (রহিমাহুল্লাহ) এর বিভিন্ন উক্তির উদ্বৃতি দিয়ে শায়েখ খুবাইব, আল-কায়েদা মুজাহিদিন কর্তৃক পুনরায় আমেরিকায় অভিযান চালানোর প্রস্তুতির কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, “হে আমেরিকানরা! তোমারা নিরাপদ নও যতক্ষণ না তোমরা (পূর্বের ঘটনা থেকে) পুরোপুরি শিক্ষা গ্রহণ করছ এবং যেসব কারণে ৯/১১ এর হামলা সংঘটিত হয়েছিল সেগুলো নির্মূল না করছ। শায়েখ উসামা (রহিমাহুল্লাহ) তাঁর বিবৃতিগুলোতে বারবার এসব কারণ সম্পর্কে আলোকপাত করেছেন।”

শায়েখ আরো বলেন,
“আমেরিকানরা নিরাপত্তা ও শান্তি পেতে পারবে না, যার প্রতিশ্রুতি বুশ তাদেরকে দিয়েছিল। আল-কায়েদার সর্বশেষ মুজাহিদকে শহীদ করে দিলেও আমেরিকানরা নিরাপত্তা পাবে না। হে আমেরিকানরা! তোমরা অনিরাপদ যতদিন না তোমরা ইসলাম ও মুসলিমদের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত আছ, হোক সে যুদ্ধ “সন্ত্রাসবাদ দমন” বা অন্য কোনো নামে। মুজাহিদদের কোনো সীমানা দিয়ে থামানো যাবেনা। তাঁরা আজ আর কোনো সীমানার গন্ডিতে আবদ্ধ নন, যুলুমের বিরুদ্ধে লড়তে তাঁরা বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে যেতে পারবেন “।

শায়েখ ২০১৯ সালে পেনসাকোলা নেভাল স্টেশন ও ২০০৯ সালে ফোর্ট হুড এ আক্রমণ চালনাকারী দুইজন অকুতোভয় জানবায মুজাহিদ মুহাম্মাদ আল শামরানি ও নিদাল হাসান এর স্মৃতিচারণ করে বলেন, “তাঁরা আমেরিকানদের ঘাঁটিতে থেকে আমেরিকারই পিঠে খন্জরাঘাত করেছেন”।

শায়েখ আরো বলেন, “আল-কায়েদার আরো বড় ধরণের হামলা চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে। আসন্ন অভিযানগুলো ৯/১১ এর অনুরূপ হবে না, তবে তার চেয়েও বহুগুণে বেশি শক্তিশালী, ধ্বংসাত্মক ও বেদনাদায়ক হবে।”

শায়েখ উসামার উক্তি দিয়ে মুহতারাম খুবাইব হাফিজাহুল্লাহ্ বলেন, আমেরিকা ততদিন পর্যন্ত নিরাপত্তার স্বপ্নও দেখতে পারবে না যতদিন না আমরা বাস্তবিকভাবেই ফিলিস্তিনে বসবাস করতে পারছি এবং যতদিন না মুহাম্মদ (ﷺ) এর ভূমি থেকে সব কুফফার সৈন্য বিতাড়িত হচ্ছে। ৯/১১ এর মত হামলা পুনরায় চালাতে দেরি হবার কারণ আমেরিকার নিরাপত্তা বেষ্টনি ভেদ না করতে পারা নয়, বরং এর কারণ অভিযানগুলোর জন্য প্রস্তুতি চলছে। প্রস্তুতি শেষ হওয়া মাত্রই আমেরিকানদের বাড়ির সামনেই এসব হামলা এসে উপস্থিত হবে।”

দীর্ঘ এই বক্তব্যের সমাপ্তি টানার পূর্বে শায়েখ খুবাইব আবারো উদ্বৃত করেন শহীদ শায়েখ উসামার উক্তি: “দিন এবং রাত অতিক্রান্ত হবেনা যতদিন না আমরা পুনরায় ৯/১১ এর মত প্রতিশোধ নিব, ইনশাআল্লাহ”।

7 মন্তব্যসমূহ

  1. আলহামদুলিল্লাহ্ খিলাফার নবসুচনা হতে যাচ্ছে আল কাইদার হাতে ইনশাআল্লাহ
    বিশ্ব আল কাইদা কে ভিশন ডারাই
    জানে এরা কেমন মারাত্মক জিনিস
    আল্লাহ আমাকেও কবুল কর

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন