কঙ্গোতে বেসামরিক নাগরিকদের গুলি করে হত্যা করছে জাতিসংঘ

আলী হাসনাত

0
944

কঙ্গো গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রে জাতিসংঘের কথিত শান্তিরক্ষীরা দেশটিতে অশান্তির আগুন আরও বাড়াচ্ছে। সম্প্রতি এই কুফ্ফার সংঘটির সৈন্যরা কঙ্গো এবং উগান্ডার সীমান্তে বেসামরিকদের উপর গুলি চালিয়ে অন্তত ১৭ জনকে হতাহত করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গো (KDC) এবং উগান্ডার সীমান্তে বিক্ষোভকারীদের উপর এলোপাতাড়ি গুলি চালায় জাতিসংঘের সৈন্যরা। এতে ২ জন নিহত এবং ১৫ জন প্রাণ হারিয়েছে।

মূলত দেশটিতে কুফ্ফার জাতিসংঘের উপস্থিতির বিরুদ্ধে জনগণ বিক্ষোভে নামলে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। দেশটিতে সম্প্রতি দখলদার জাতিসংঘ বিরোধী বিক্ষোভে শুরু হওয়ার পর এখন পর্যন্ত জাতিসংঘের কথিত শান্তিরক্ষীসহ অন্তত ২০ জন প্রাণ হারিয়েছে।

সর্বশেষ এই ঘটনাটি ঘটেছে কঙ্গো এবং উগান্ডা সীমান্তের মধ্যবর্তী কাসিন্দি অঞ্চলে। এই এলাকায় জাতিসংঘের কথিত শান্তিরক্ষীরা বেসামরিক নাগরিকদের ওপর গুলি চালায়।

দেশটির ইউএন স্ট্যাবিলাইজেশন মিশন (মনসকো) প্রধান ‘বিন্টো কেইটা’ বলেছে যে, “শান্তিরক্ষীরা” কী কারণে গুলি চালিয়েছে সে সম্পর্কে কোনও তথ্য নেই। তবে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, কঙ্গোতে জাতিসংঘের ১৬ হাজর সদস্য রয়েছে। যারা শান্তিরক্ষার নামে অশান্তির বীজ বুনছে। দেশে ধর্ষণ, অন্যায় হত্যাকান্ডের মতো ঘটনাগুলো ঘটাচ্ছে এই কথিত শান্তিরক্ষীরা। আর এসব কারণেই বিক্ষোভকারীরা দেশটিতে জাতিসংঘের উপস্থিতির বিরোধিতা করছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন