পলিসিলিকন কারখানায় জোরপূর্বক উইঘুর মুসলিমদের ব্যবহার করছে দখলদার চীন

ওবায়দুল ইসলাম

0
385

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ব্রেকথ্রু ইনস্টিটিউটের একটি গবেষণায় উঠে এসেছে যে, বিশ্বব্যাপী সৌর প্যানেল উৎপাদন শিল্পের সাথে মানবাধিকার সমস্যা যুক্ত রয়েছে। প্রায় ২০০ টিরও বেশি সরকারী নথি, মিডিয়া রিপোর্ট এবং একাডেমিক কাগজপত্রের মাধ্যমে তারা এই গবেষণামূলক প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে।

উক্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীন গত দুই বছর ধরে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ‘শ্রম স্থানান্তর’ কর্মসূচির অধীনে পলিসিলিকন তৈরিতে জোর করে পূর্ব তুর্কীস্তানের উইঘুর মুসলিমদের কাজ করাচ্ছে। পলিসিলিকন মূলত সৌর প্যানেল তৈরিতে ব্যবহৃত একটি উপাদান। গবেষকরা বলছেন, চীন উইঘুর মুসলিমদের গ্রেপ্তার ও এমনকি কারাবাসের হুমকি দিয়েও এসব কারখানায় কাজ করতে বাধ্য করছে।

চীনের পলিসিলিকন কারখানাগুলো মূলত তুর্কীস্তানকে কেন্দ্র করেই গড়ে তোলা হয়েছে। এই কারখানাগুলোর মাধ্যমে চীন গত বছর বিশ্বের মোট ৪২ ভাগ পলিসিলিকন উৎপাদন করেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, জিসিএল টেকনোলজি হোল্ডিংস লিমিটেড (এরা চীনের মোট সৌর-গ্রেড পলিসিলিকনের ৮.৪ ভাগ উৎপাদন করে) ও অন্যান্য কোম্পানি মিলে পূর্ব তুর্কীস্তানের হোতান শহর থেকে ১,৮০০ এর বেশি উইঘুর মুসলিম শ্রমিক স্থানান্তর করেছে। এছাড়াও অন্যান্য পলিসিলিকন উৎপাদনকারী কোম্পানি যেমন, ইস্ট হোপ গ্রুপ, দাকো নিউ এনার্জি কর্পোরেশন এবং তুর্কিস্তান ভিত্তিক কোম্পানি শিন্ট এনার্জিকেও জোরপূর্বক উইঘুর মুসলিম শ্রমিক নিয়োগ করতে দেখা গিয়েছে।

গবেষকরা বলছেন যে, সৌর কারখানার কর্মীদের মধ্যে ঠিক কতজন উইঘুর মুসলিম রয়েছেন তা সঠিকভাবে বলা সম্ভব নয়। তবে স্থানান্তরকৃত উইঘুর মুসলিম শ্রমিকদেরকে তাদের পরিবার থেকে আলাদা করে শহর থেকে অনেক দূরে পাঠানো হয় বলে উল্লেখ করেছেন তারা।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, উইঘুর মুসলিমদের দিয়ে স্বল্প বেতনে বিপজ্জনক কাজ করাচ্ছে পূর্ব তুর্কীস্তানকে আগ্রাসন চালানো সন্ত্রাসী চীন। এছাড়াও উইঘুরদের দিয়ে অতিরিক্ত সময়ও কাজ করাচ্ছে তারা। জোরপূর্বক কাজ করানোর পাশাপাশি উইঘুর শ্রমিকদেরকে কথিত ‘পুনঃশিক্ষা প্রক্রিয়ায়’ অংশ নিতেও বাধ্য করছে দখলদার চীন। এই পুনঃশিক্ষা মূলত পূর্ব তুর্কীস্তান থেকে উইঘুর মুসলিমদের নিশ্চিহ্ন করারই একটি প্রজেক্ট।

প্রতিবেদনে গবেষকরা আরও বলেছেন, তারা যেসব ছবি পেয়েছেন তা থেকে এটা স্পষ্ট যে, চাইনিজরা বিপজ্জনক কাজের ক্ষেত্রে উইঘুর মুসলিম শ্রমিকদের প্রয়োজনীয় প্রতিরক্ষামূলক পোশাক সরবরাহ করে না।

সবশেষে, প্রতিবেদনের উপসংহারে গবেষকরা বলেছেন যে, সৌর উৎপাদনকারী সংস্থাগুলি উইঘুর, কাজাখ, কিরগিজ এবং তুর্কীস্তানের অন্যান্য মুসলিমদের উপর দখলদার চীনের নির্যাতনের সাথে জড়িত।


তথ্যসূত্রঃ
১। Forced Uyghur labor is being used in China’s solar panel supply chain, researchers say – https://tinyurl.com/yxtvyhds
২। Evidence grows of forced labour and slavery in production of solar panels, wind turbines – https://tinyurl.com/4vhh3xme
৩। Confronting the Solar Manufacturing Industry’s Human Rights Problem – https://tinyurl.com/4zz23pb9

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন