ফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

0
176
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

খান ইউনিসের আল-আমাল হাসপাতাল থেকে ৮ হাজার বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিকে উচ্ছেদ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। গত ২ সপ্তাহ ধরে হাসপাতালটি অবরুদ্ধ করে রেখেছে দখলদার জায়োনিস্ট বাহিনী।

জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের সহায়তা বিষয়ক সংস্থার একটি খাদ্যবাহী ট্রাকে হামলা করেছে জায়োনিস্ট নৌ-বাহিনী।

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে প্রস্তাবিত একটি বিল অনুযায়ী ১৪ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি ইসরায়েলকে দেওয়া হবে। তবে বিশেষভাবে বলা হয়েছে, কোনো অর্থই যেন জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের সাহায্য বিষয়ক সংস্থা ইউএনআরডব্লিউএ-তে না যায়।

যুক্তরাষ্ট্রের সেক্রেটারি অব স্টেট অ্যান্টনি ব্লিনকেন আরও একবার মধ্যপ্রাচ্যে গিয়েছে। এবারে সে সৌদি আরবে গিয়েছে আরেকটি যুদ্ধবিরতি ও বন্দী বিনিময় চুক্তি সম্পন্নের আশায়।

জাতিসংঘ বলেছে, গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১ লাখের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত, আহত বা নিখোঁজ হয়েছেন। এটি আধুনিক ইতিহাসের সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক সামরিক আগ্রাসনগুলোর অন্যতম।

গাজায় দখলদার ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন অন্তত ২৭,৪৭৮ জন ফিলিস্তিনি।

৫ই ফেব্রুয়ারি জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ যোদ্ধাদের চালানো হামলার বিবরণ:

আল-কাসসাম ব্রিগেড:

– খান ইউনিসের পশ্চিমে জায়োনিস্ট স্কাইলার্ক গোয়েন্দা ড্রোন জব্দ করেছেন।
– আল-কুদুস ব্রিগেডের সাথে একটি যৌথ অভিযানে জায়োন্সিট বাহিনীর উপর মর্টার শেল এবং ১০৭মিমি রকেট হামলা চালিয়েছেন।
– খান ইউনিসের পশ্চিমে জায়োন্সিট বাহিনীর একদল সৈন্যকে অ্যাম্বুশের শিকার বানিয়েছেন। আগে থেকে পুঁতে রাখা ৩টি বিস্ফোরক ডিভাইস একটি মারকাভা ট্যাংককে টার্গেট করে বিস্ফোরিত করেছেন। আরেকটি ট্যাংকে ইয়াসিন ১০৫ দিয়ে হামলা চালিয়েছেন।
– খান ইউনিসের পশ্চিমে ৪টি মারকাভা ট্যাংকে ইয়াসিন ১০৫ দিয়ে হামলা করেছেন।
– একটি ভবনে অবস্থান নেওয়া জায়োনিস্ট বাহিনীর একটি দলকে টিবিজি দুর্গবিধ্বংসী গোলা দিয়ে হামলা করেছেন। এতে শত্রুসেনারা হতাহত হয়েছে।

আল-কুদুস ব্রিগেড:

– খান ইউনিসের উপকণ্ঠে জায়োনিস্ট সৈন্যদের টার্গেট করে অ্যান্টি পার্সনেল বোরাক বোমা দিয়ে হামলা করা হয়েছে।
– খান ইউনিসের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকণ্ঠে জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর মর্টার হামলা করা হয়েছে।
– মধ্য গাজার আল-মাগাঝি ক্যাম্পের পূর্বে জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর মর্টার হামলা করা হয়েছে।
– খান ইউনিসের খান ইউনিসে জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর গ্রাড রকেট হামলা করা হয়েছে। টার্গেটে সফলভাবে আঘাত হেনেছে রকেটগুলো।
– এছাড়া, তাল আল-হাওয়া, আল-মাসদার গ্রাম এবং গাজা শহরের শিল্প এলাকায় জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর রকেট ও মর্টার হামলা করেছেন যোদ্ধারা।

আল-আকসা ব্রিগেড:

– খান ইউনিসে এক জায়োনিস্ট সৈন্যকে স্নাইপার হামলার শিকার বানিয়েছেন।
– গাজা শহরের পশ্চিমে একটি মারকাভা ট্যাংকে আরপিজি ও বিস্ফোরক ডিভাইস দিয়ে হামলা করেছেন। এতে ট্যাংকে আগুন ধরে যায় এবং শত্রুসেনারা হতাহত হয়।
– গাজা শহরের শিল্প এলাকায় জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর আল-আকসা রকেট ও মর্টার শেল দিয়ে হামলা করা হয়েছে। এছাড়া খান ইউনিস এবং গাজা শহরে জায়োনিস্ট বাহিনীর সাথে তীব্র সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছেন।

মুজাহিদিন ব্রিগেড:

– গাজা শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর স্বল্প দূরত্বের রকেট হামলা করেছেন।
– গাজা শহরের পশ্চিম উপকণ্ঠে জায়োনিস্ট বাহিনীর সাথে উপযুক্ত যুদ্ধাস্ত্র নিয়ে লড়াই করেছেন।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধফটো রিপোর্ট || আফগান পুলিশের বিশেষ ইউনিট “ইয়ারমুক” ফোর্স
পরবর্তী নিবন্ধনতুন বিবৃতিতে জায়োনিস্ট বাহিনীর ৪৩টি যান ধ্বংসের ঘোষণা আল-কাসসাম মুখপাত্রের