আফগানিস্তানে দর্শনীয় স্থানসমূহে দেশী-বিদেশি পর্যটকের আকর্ষণ বাড়ছে

0
268

নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থানে সমৃদ্ধ দেশ আফগানিস্তান। ইমারতে ইসলামিয়া সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। ফলে দর্শনীয় স্থানসমূহে দেশী-বিদেশি পর্যটকের সংখ্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইমারতে ইসলামিয়ার তথ্য ও সংস্কৃত বিভাগের সরবরাহকৃত বার্তায় এসংক্রান্ত তথ্য উঠে এসেছে। বলা বাহুল্য যে, পর্যটন শিল্পের সুষ্ঠু বিকাশ একটি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

বসন্ত ঋতুতে আফগানিস্তানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য নতুন রূপ লাভ করে। ফলে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যবেষ্টিত সারেপুল প্রদেশে পর্যটকদের আগমন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। বন বিভাগের মুখপাত্র আব্দুল গাফফার হাকনামা জানিয়েছেন, বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত দেশী পর্যটক ভিড় করছেন উক্ত প্রদেশের মনোমুগ্ধকর পর্যটন কেন্দ্রসমূহে।

এছাড়াও ঐতিহাসিক, বিনোদনমূলক ও প্রাচীন স্থানসমূহ অনুসন্ধানের উদ্দেশ্যে একদল রুশ পর্যটক পাঞ্জশির প্রদেশ পরিদর্শন করেছেন। গত ১৭ এপ্রিল বুধবার তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রধানের সাথে তার কার্যালয়ে বৈঠক করেছেন পর্যটকগণ। পাঞ্জশির প্রদেশে উক্ত বিভাগের প্রধান মাওলানা নাসরুল্লাহ মালিকজাদা তাদেরকে শান্তির রাষ্ট্রদূত হিসেবে অভিহিত করেছেন। আন্তর্জাতিক ভ্রমণের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের সাথে ইতিবাচক সম্পর্ক গড়ে তুলতে তিনি তাদেরকে উৎসাহিত করেছেন। এই ধরনের ভ্রমণ অন্যান্য জাতির কাছে নিজেদের রীতিনীতি ও ঐতিহ্য প্রদর্শনেরও একটি মাধ্যম।

রুশ পর্যটকগণ ভ্রমণের ব্যাপারে তাদের সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। তারা মন্তব্য করেন, আফগানিস্তান জুড়ে এখন প্রকৃত নিরাপত্তা বিরাজ করছে, এখানে অসুবিধার মুখোমুখি হওয়ার কোনও কারণ নেই বর্তমানে।

চলতি মাসে হেরাত জাদুঘর ও সংরক্ষণাগারে প্রায় আড়াই হাজার পর্যটকের আগমন রেকর্ড হয়েছে। বিগত বছরের তুলনায় এই সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২ বছরে ৫০০ টিরও বেশি ঐতিহাসিক নিদর্শন উক্ত জাদুঘরে স্থানান্তর করেছেন সাংস্কৃতিক কর্মী ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যগণ। জাদুঘরটি ঐতিহাসিক আখতারউদ্দিন দুর্গের মধ্যে অবস্থিত, যা হেরাত প্রাসাদ নামেও পরিচিত। ইসলামিক, প্রাক-ইসলামিক ও সমসাময়িক যুগের বিভিন্ন নিদর্শন এতে স্থান পেয়েছে।

উল্লেখ্য যে, বসন্ত ঋতুর শুরু থেকেই আফগানিস্তানের দর্শনীয় স্থানসমূহে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক দেশী ও বিদেশি পর্যটকদের আগমন প্রত্যক্ষ করা যাচ্ছে। ইমারতে ইসলামিয়ার তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ দর্শনার্থীদের প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা প্রদানে সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।


তথ্যসূত্র:
1. Group of Russian tourists visit Panjshir to explore its historical and recreational sites
https://tinyurl.com/5by755k7
2. Over 2500 visitors explore Herat museum this month
https://tinyurl.com/6b4pws8t
3. Notable surge in number of tourists to Saripul
https://tinyurl.com/54dpcnbd

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধমার্চ মাসজুড়ে ইয়েমেনে আল-কায়েদার ৩ অ্যাম্বুশ সহ ১৩ অভিযান
পরবর্তী নিবন্ধগাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা অব্যাহত, নিহত ৩৪ হাজার ছুঁই ছুঁই