মার্চ মাসজুড়ে ইয়েমেনে আল-কায়েদার ৩ অ্যাম্বুশ সহ ১৩ অভিযান

0
193

আল-কায়েদা আরব উপদ্বীপ ভিত্তিক সশস্ত্র ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী জামা’আত আনসারুশ শরিয়াহ্। দলটি চলতি বছরের মার্চ মাসে মধ্য-প্রাচ্যের দেশ ইয়েমেনে ৩টি অ্যাম্বুশ সহ অন্তত ১৩টি সামরিক অপারেশন পরিচালনার তথ্য নিশ্চিত করেছে। প্রতিরোধ বাহিনীর সাথে সংশ্লিষ্ট আল-মালাহিম মিডিয়ায় প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, মুজাহিদদের পরিচালিত এসকল অভিযানের ৬টিতেই শত্রু বাহিনীর অন্তত ২৩ সেনা সদস্য হতাহত হয়েছে। মুজাহিদদের অন্য ৭টি অভিযানে আরও কয়েক ডজন শত্রু সৈন্য হতাহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

আনসারুশ শরিয়াহ্ কর্তৃক পরিচালিত অভিযানগুলোর অন্যতম একটি গত ৫ মার্চ সকালে আবিয়ান রাজ্যের ওয়াদিয়ে ওমরান এলাকায় চালানো হয়।এলাকাটিতে মুজাহিদদের অ্যাম্বুশের সফল টার্গেটে পরিণত হয় সংযুক্ত আরব-আমিরাতের ভাড়াটে মিলিশিয়া সদস্যরা ।

সূত্রমতে, মুজাহিদগণ এই অ্যাম্বুশে আইইডি বিস্ফোরণ ও ভারী অস্ত্রের পাশাপাশি স্নাইপার রাইফেলও ব্যবহার করেন। ফলে মুজাহিদদের হামলায় মিলিশিয়া বাহিনীর ২টি সাঁজোয়া যান এবং ৩টি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেই সাথে কয়েক ডজন মিলিশিয়া সদস্য নিহত এবং আহত হয়। অপরদিকে মিলিশিয়া বাহিনী দাবি করে যে, মুজাহিদদের উক্ত অভিযানে তাদের এক সৈন্য নিহত এবং অন্য কয়েকজন সৈন্য আহত হয়েছে।

আনসারুশ শরিয়াহ্’র মুজাহিদগণ মার্চে তাদের অন্য একটি সফল অভিযান পরিচালনা করেন আবিয়ান রাজ্যের মুদিয়া এলাকায়। অভিযানটি ২১ মার্চ বিকালে ২টি বিস্ফোরক ডিভাইস দ্বারা আমিরাতের ভাড়াটে বাহিনীকে টার্গেট করে চালানো হয়। এতে মিলিশিয়া বাহিনীর ২ সদস্য নিহত এবং অন্য ৫ সদস্য আহত হয়।

এই অভিযানের দু’দিন পর অর্থাৎ ২৪ মার্চ, আবিয়ান রাজ্যের আল-বাকিরা এলাকায় একটি সুনির্দিষ্ট সফল অ্যাম্বুশ করেন মুজাহিদগণ। এতে এলাকাটিতে মিলিশিয়া বাহিনী ও মুজাহিদদের মধ্যে তীব্র লড়াই শুরু হয়। একপর্যায়ে শত্রু বাহিনীর পিছু হটতে বাধ্য হয়। ততক্ষণে মুজাহিদদের হাতে ২ ভাড়াটে মিলিশিয়া সৈন্য এবং আরও অসংখ্য সৈন্য আহত হয়। সেই সাথে মুজাহিদগণ শত্রু বাহিনীর একটি গাড়ি পুড়িয়ে দেন।

এদিকে গত ২৫ মার্চ, আরব আমিরাতের ভাড়াটে মিলিশিয়াদের টার্গেট করে একটি অতর্কিত আক্রমণ চালান মুজাহিদগণ। আবিয়ানের ওয়াদিয়ে ওমরান এলাকায় মুজাহিদদের অতর্কিত এই আক্রমণে অন্তত ২ মিলিশিয়া সদস্য নিহত এবং আরও অনেক মিলিশিয়া সদস্য আহত হয়।

এদিন সকালে ওমরান এলাকায় মিলিশিয়া বাহিনীর একটি টহল দল ও ২টি পদাতিক দলকে টার্গেট করেও পৃথক হামলা চালান মুজাহিদগণ। প্রথমে টহল দলকে টার্গেট করে মুজাহিদদের পরিচালিত আইইডি বিস্ফোরণে ১ সৈন্য নিহত এবং অন্য ১ সৈন্য আহত হয়।

বাকি ২টি পদাতিক দলকে টার্গেট করে মুজাহিদদের পরিচালিত আইইডি বিস্ফোরণে মিলিশিয়া বাহিনীর ১টি মোটরসাইকেল ও একটি গাড়ি ধ্বংস হয়। এসময় মোটরসাইকেল ও গাড়িতে থাকা ২ মিলিশিয়া নিহত এবং অন্যরা আহত হয়।

এমনিভাবে গত ২৬ মার্চ আবিয়ান রাজ্যের আল-বাকিরা এলাকায়, আমিরাতের ভাড়াটে মিলিশিয়া বাহিনীর আরও একটি পদাতিক দলকে টার্গেট করেন মুজাহিদগণ। এলাকাটিতে মুজাহিদদের বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরণে ভাড়াটে মিলিশিয়া বাহিনীর ২টি মোটরসাইকেল ধ্বংস হয় এবং কতক মিলিশিয়া সদস্য হতাহত হয়।

অপরদিকে গত ৩০ মার্চ, আবিয়ান রাজ্যের আমসারা অঞ্চলে একটি বিস্তৃত অ্যাম্বুশ পরিচালনা করেন মুজাহিদগণ। অভিযানটি দক্ষিণী মিলিশিয়া বাহিনীর পঞ্চম ব্রিগেডের সদস্যদের টার্গেট করে চালানো হয়। আনসারুশ শরিয়াহ্’র মুজাহিদদের অতর্কিত এই আক্রমণের পর এলাকাটিতে তীব্র সংঘর্ষ শুরু হয়। এক পর্যায়ে মুজাহিদদের হাতে মিলিশিয়া বাহিনীর পঞ্চম ব্রিগেডের ব্যাটালিয়ন কমান্ডার (ফাহিম আহমদ সায়েল) সহ ৩ সৈন্য নিহত হয় এবং আরও ৪ সৈন্য গুরুতর আহত হয়।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধশরণার্থী শিবিরে দখলদার ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ২৮ জন নিহত
পরবর্তী নিবন্ধআফগানিস্তানে দর্শনীয় স্থানসমূহে দেশী-বিদেশি পর্যটকের আকর্ষণ বাড়ছে