ইমারতে ইসলামিয়ার সহযোগিতায় সমৃদ্ধ হচ্ছে হেরাত প্রদেশের হস্তশিল্প

0
248

আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে আবহমান কাল থেকেই হস্তবুনন শিল্পের (কুটির শিল্প) জনপ্রিয়তা রয়েছে। এই সকল শিল্পের মধ্যে অন্যতম হল গিল্ডিং (স্বর্ণের আলংকারিক প্রলেপ), জপমালা তৈরি, এনামলিং (ধাতুর উপর কাচের সূক্ষ আলংকারিক প্রলেপ), কার্পেট বুনন, কাঁচ তৈরি, নুরিস্তানি খোদাই, খোরাসি ও রৌপ্য সজ্জা।

ইমারতে ইসলামিয়া সরকার এই শিল্পগুলো সমৃদ্ধ করতে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ফলে স্থানীয় ঐতিহ্য ও ইতিহাস সংরক্ষণ হচ্ছে। পাশাপাশি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে এই শিল্পগুলো গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

হেরাত তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ এবং একদল হস্তশিল্পীর যৌথ সহায়তায় প্রদেশটিতে একটি আর্ট গ্যালারি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রাদেশিক প্রধান মৌলভী আহমাদুল্লাহ মুত্তাকি হাফিযাহুল্লাহ এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ইমারতে ইসলামিয়া ধারাবাহিকভাবে দেশের সকল প্রকার শিল্পকে উন্নত করতে উদ্যোগ নিয়েছে। এই ক্ষেত্রে তারা বিভিন্ন ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

ক্যাপশন: হেরাত প্রদেশের ঐতিহ্যবাহী কাঁচ শিল্প।

হেরাত প্রদেশে বর্তমানে দুটি কাঁচ শিল্পের ফ্যাক্টরি রয়েছে। প্রদেশটির কাঁচ হস্তশিল্পীগণ শিল্পটির সম্প্রসারণের উদ্যোগে ইমারতে ইসলামিয়ার সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

গৃহ, অফিস, রেস্তোরাঁ ও বিভিন্ন প্রদর্শনীতে এই পণ্যসমূহের ব্যবহার সৌন্দর্যবর্ধনের মাধ্যমে ব্যবহারকারীকে আনন্দ দান করে। তাই হেরাতে আগমনকারী বিদেশী পর্যটকদের নিকট হস্তনির্মিত পণ্যগুলোর চাহিদা অত্যন্ত বেশি।


তথ্যসূত্র:
1. Herat’s handicrafts industry flourishes with the IEA’s full support
https://tinyurl.com/2yzbrwxr
2. Herat’s Decorative Glass Industry Flourishing Under the Rule of IEA
https://tinyurl.com/8dm88jm6

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধসুদানে আমিরাত সমর্থিত মিলিশিয়াদের হাতে ২০০ বেসামরিক নাগরিক নিহত
পরবর্তী নিবন্ধছত্তিশগড়ে মহিষ বহন করায় দুই মুসলিম যুবক কে পিটিয়ে হত্যা