বিএসএফ গুলি চালাতে পারে: সীমান্ত এলাকায় বিজিবির মাইকিং

0
207

ভারতের অভ্যন্তরে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) এক সদস্যকে কুপিয়ে জখমের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সীমান্তবর্তী সীমান্ত ইউনিয়নের তারকাঁটার আশপাশে স্থানীয়দের না যাওয়ার জন্য মাইকিং করেছে বিজিবি।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে উপজেলার মহেশপুর ৫৮ বিজিবির অধীনস্থ উথলী বিশেষ ক্যাম্পের পক্ষ থেকে সীমান্ত ইউনিয়নে মাইকিং করে জনসাধারণকে সতর্ক করা হয়। এছাড়া দর্শনা নিমতলা আকন্দবাড়ীয়ার সীমান্তবর্তী এলাকাতেও মাইকিংসহ মসজিদের মাইকে সীমান্ত এলাকার গ্রামগুলোতে সর্তকতা জারি করে মাইকিং করা হয়েছে।

মাইকিংয়ে বলা হয়, ‘বিএফএফ সদস্যরা সীমান্তের নিকটবর্তী বাংলাদেশি অসামরিক ব্যক্তিদের লক্ষ্য করে গুলি চালাতে পারে। বাংলাদেশি জনসাধারণকে সীমান্ত এলাকায় না যাওয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে। অনুরোধক্রমে উথলী বিশেষ ক্যাম্প।’

বিজিবি জানায়, সোমবার রাতে মহেশপুর সীমান্তের ভারতের অভ্যন্তরে বিএসএফ সদস্যকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। বিএসএফের দাবি- হামলাকারীরা বাংলাদেশি। তবে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বাংলাদেশি নাগরিকদের সংশ্লিষ্টতার কোনো প্রমাণ আছে কি না- তা বিজিবি জানতে চাইলে বিএসএফ তথ্য প্রদানে ব্যর্থ হয়।

পতাকা বৈঠকে হামলার ঘটনায় ভারতীয় তিনজন নাগরিকের সরাসরি যুক্ত থাকা এবং বিএসএফ কর্তৃক একজন হামলাকারীকে আটকের পরিচয়সহ বিজিবির জোরালো দাবির প্রেক্ষিতে বিএসএফ সম্মত হয় যে, হামলার ঘটনায় ভারতীয়রাই জড়িত। এতে বাংলাদেশি কাউকে জড়িত পাওয়া যায়নি বলেও জানান তিনি।

বিজিবির পক্ষ থেকে সর্তকতামুলক মাইকিংয়ের ঘটনায় সীমান্ত এলাকার লোকজনের মধ্যে কিছুটা আতঙ্ক বিরাজ করছে। বিশেষ করে সীমান্ত লাগোয়া জমিতে যাদের চাষাবাদ রয়েছে, সেই কৃষকরা চিন্তায় পড়েছেন তাদের ফসল নিয়ে।


তথ্যসূত্র:
১. বিএসএফ গুলি চালাতে পারে, সীমান্ত এলাকায় না যেতে মাইকিং
https://tinyurl.com/mrwfu4zk

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধসুদানে আরএসএফ কর্তৃক গণহত্যার শিকার ৬১ জন বেসামরিক নাগরিক
পরবর্তী নিবন্ধফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ১২ জুন, ২০২৪