ফিলিস্তিনের জিহাদ || আপডেট – ১৯ জুন, ২০২৪

0
184

রাফার পশ্চিমাঞ্চলে ইসরায়েলি ট্যাংক এবং ড্রোন দিয়ে ত্রাণের জন্য অপেক্ষারত ফিলিস্তিনিদের উপর হামলা চালিয়েছে। এতে অন্তত ৯ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৩০ জন।

মধ্য গাজা, দেইর আল-বালাহ এবং নুসেইরাতে ভয়াবহ সিরিজ হামলা চালিয়েছেন জায়োনিস্ট ইসরায়েলি বাহিনী।

দখলদার ইহুদিরা নেতানিয়াহু সরকারের পদত্যাগের দাবিতে প্রধান মহাসড়কগুলো অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

পশ্চিম তীর থেকে ২০ জনকে গ্রেফতার করেছে জায়োনিস্ট বাহিনী।

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বার বার মন্তব্য করছে যে, ইসরায়েল হামাসকে পরাজিত না করা পর্যন্ত গাজা যুদ্ধ শেষ করবে না। কিন্তু ইসরায়েলি সামরিক মুখপাত্র বলেছে, ‘হামাস একটি আদর্শ’ এবং ‘আমরা কোনো আদর্শের মূলোৎপাটন করতে পারব না।’

রাফায় এখন ৬৫ হাজারের মতো ফিলিস্তিনি রয়ে গেছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা। রাফায় জায়োনিস্ট হামলা চালানোর পরে ১০ লক্ষাধিক ফিলিস্তিনি রাফা ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।

গাজায় জায়োনিস্ট বাহিনীর হামলায় এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন অন্তত ৩৭,৪৩১ জন ফিলিস্তিনি।

গাজা শহরের আল-জায়তুন পাড়ার পূর্বে সাদ মসজিদের কাছে জায়োনিস্ট শত্রুবাহিনীর উপর মর্টারশেল হামলা চালিয়েছেন আল-কুদুস ব্রিগেড।

কালকিলিয়াতে বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে জায়োনিস্ট বাহিনীর বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই করেছেন আল-আকসা শহীদি ব্রিগেড।

কেরেম শালুমে গাজা থেকে ছোঁড়া ৫টি গোলা বিস্ফোরিত হয়েছে বলে জানিয়েছে জায়োনিস্ট সূত্র। এছাড়া লেবানন থেকে উড়ানো ৩টি ড্রোন মেতুল্লাতে দখলদারদের উপর আঘাত হেনেছে।

গাজা শহরের আল-জায়তুন পাড়ার দক্ষিণপূর্বে অনুপ্রবেশকারী জায়োনিস্ট বাহিনীর উপর ভারী মর্টারশেল হামলা চালিয়েছেন আল-কাসসাম ব্রিগেড।

• গাজা শহরের জায়তুন পাড়ার পূর্বে সাদ মসজিদের পাশে অবস্থান নেওয়া জায়োনিস্ট সৈন্যদের উপর মর্টারশেল হামলা চালিয়েছেন আল-আকসা শহীদি ব্রিগেড।

নেতজারিমে জায়োনিস্ট বাহিনীর কমান্ড ও কন্ট্রোল রুমে যৌথভাবে মর্টারশেল হামলা চালিয়েছেন আল-আকসা শহীদি ব্রিগেড এবং আল-কুদুস ব্রিগেড।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধফটো রিপোর্ট || মালিতে মুজাহিদদের ঈদ আয়োজন
পরবর্তী নিবন্ধঈদের দিনে অবিরাম আক্রমণ আর ক্ষুধায় জর্জরিত গাজা