‘সন্ত্রাসী মোদি মুসলিমদের রাষ্ট্রহীন করে ডিটেনশন ক্যাম্পে পাঠাতে চাচ্ছে:-ওয়াইসি

0
126

সন্ত্রাসী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার মুসলিমদের রাষ্ট্রহীন করতে চাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছে মজলিশ-ই-ইত্তেহাদুল-মুসলেমিন’ (মিম) প্রধান ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি। গতকাল (বৃহস্পতিবার) এক টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

সাক্ষাৎকারে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রস্তাবিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) ইস্যুতে সরকারের তীব্র সমালোচনা করে ওয়াইসি বলেন, ভারতের সংবিধানে নাগরিকত্বকে ধর্মের সঙ্গে যুক্ত করা হয়নি। কিন্তু ক্ষমতাসীন সন্ত্রাসী দল বিজেপি সরকার তাদের উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য নাগরিকত্বকে ধর্মের সঙ্গে যুক্ত করে সংবিধানে পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছে।

ওয়াইসি বলেন, ‘নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের পরে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি এনআরসি আসবে, এরমধ্যে ‘যারা মুসলিম নয়’ তাঁরা সকলেই নাগরিকত্ব পাবে। এবং মুসলিমদের ডিটেনশন ক্যাম্পে পাঠানো হবে। মুসলিমদের দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক নয় বরং রাষ্ট্রহীন করতে চাচ্ছে। মোদ্দাকথা মুসলিমদের রাষ্ট্রহীন করতে চাচ্ছে মালাউন সন্ত্রাসী মোদী সরকার। মোদী সরকার দেশকে বিভক্ত করার কাজ করছে।’

এরপর তিনি যোগ করেন, প্রধানমন্ত্রী মালাউন সন্ত্রাসী নরেন্দ্র মোদী নির্দিষ্ট কিছু মানুষের আদর্শ অনুসরণ করছে।  আর এসব মানুষের স্বার্থেই কাজ করছে তার সরকার।

সংবিধানের প্রস্তাবনার উদ্ধৃতি দিয়ে ওয়াইসি বলেন, ‘নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল তৈরি করে সরকার ভারতকে ইসরাইলের কাতারে দাঁড় করানোর চেষ্টা করছে। এর বিরোধিতা করা প্রত্যেকের দায়িত্ব, কারণ এটি নৈতিকতা ও আন্তর্জাতিক আইনের পরিপন্থী।’

অসমে এনআরসি বাস্তবায়িত হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সেখানে মুসলিমদের টার্গেট করা হয়েছিল। এখন তাদের মামলা বিদেশি ট্রাইব্যুনালে ঝুলবে। তাঁদের ডিটেনশন ক্যাম্পে পাঠানো হবে।’

সূত্র: পার্সটুডে/হাফিংটন পোস্ট ইন্ডিয়া’

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন