কোনো শক্তি মোদিসহ ভারতের অতিথিদের আসা রুখতে পারবে না: নাসিম

0
725

আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি, কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তারা অবশ্যই মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে আসবেন। কোনো শক্তি তাদের আসা রুখতে পারবে না।

গত রোববার বিকালে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শিখা চিরন্তনের সামনে আয়োজিত সমাবেশে তিনি একথা বলেন। খবর- যুগান্তর

এদিকে, আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেলে ভয়াবহ যুদ্ধ লেগে যেতে পারে। মোদিকে বাংলাদেশে আসতে দিলে ঢাকাসহ সারা দেশের বিমানবন্দর অচল করে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, মোদির আগমনের কারণে দেশে অচল অবস্থার সৃষ্টি হলে এর দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে। দেশের তৌহিদি জনতা গুজরাটের কসাইখ্যাত দিল্লি গণহত্যার সন্ত্রাসী মোদিকে বাংলাদেশের মাটিতে কোনোক্রমেই সহ্য করবে না ।

এছাড়া, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরকে প্রতিহত করতে অনড় বলে জানিয়েছে সমমনা ইসলামী দলগুলো। গতকাল এক বিবৃতিতে তাকে গুজরাট,কাশ্মির ও দিল্লির গণহত্যার মূল খলনায়ক আখ্যায়িত করে বলা হয়, ভারত সরকারের প্রত্যক্ষ মদদে দিল্লিতে মুসলিম গণহত্য, মুসলমানদের ঘরবাড়ি ও মসজিদে অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে বাংলাদেশের নাগরিকরা দলমত নির্বিশেষে রাজপথে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশের জনগণের আন্দোলনে ভ্রুক্ষেপ না করে মোদির বাংলাদেশ সফর চূড়ান্ত করা বাংলাদেশ সরকারের একটি আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত ছাড়া বৈ কিছু নয়। দেশের জনগণ মনে করেছিল, আন্দোলনের কারণে বাংলাদেশ সরকার মোদির সফর বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু করবে। কিন্তু গতকাল পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমিনের মোদির ঢাকা সফর চূড়ান্ত মর্মে প্রদত্ত বক্তব্যে আমরা বিস্মিত হয়েছি, জাতি হতবাক হয়েছে।  ৯২ ভাগ মুসলমানের দেশে মুসলমানদের হত্যাকারী মোদির পা ফেলা কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না। আমরা আবার ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর বাতিলের জোর দাবি জানাচ্ছি। সরকার যদি মোদির ঢাকা সফর বাতিল না করে তাহলে যেকোনো মূল্যে আমরা জনগণকে সাথে নিয়ে মোদির ঢাকা আগমনকে প্রতিহত করব।

 

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন