ছয় ছয়টি জায়েজ বিয়ে বন্ধ করলো তাগুত বাহিনীর ভ্রাম্যমাণ আদালত

0
419

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে এক রাতে ছয়টি জায়েজ বিয়ে বন্ধ করলো তাগুত বাহিনীর ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে এসব বিয়ে বন্ধ করে তাগুত প্রশাসন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, অভিযানে মেয়েদের ১৮ বছরের নীচে বিয়ে দেবেন না মর্মে অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে৷
খবরঃ কালের কন্ঠের

এর মধ্যে বহুলী ইউনিয়নের ধীতপুর কানু গ্রামে আবু সামা শেখের মেয়ে জান্নাতি খাতুনের বিয়ে বন্ধ করে কনের বাবা আবু সামা শেখকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। উপজেলার কাদাই গ্রামে ছানোয়ার হোসেনের তার ৭ম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ের (১৩) কথিত বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়। বাগবাটি দক্ষিণ পাড়ার আবু হানিফের মেয়ে সুবর্ণা খাতুনের (১৬) কথিত বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়। এ সময় কাজী রেজাউল করিমকে ৫০ হাজার, বর আজিজল হককে ৫ হাজার ও কনের ভগ্নিপতি খোকন মিয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। শিয়ালকোল ইউনিয়নের শিবনাথপুর গ্রামের আকতার হোসেনের মেয়ে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী আতিয়া খাতুনের (১৪) বিয়ে বন্ধ করা হয়। এ সময় বর-কনের বাবাকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। বাগবাটি ইউনিয়নের কানগাঁতী গ্রামের হাফিজুলের মেয়ে ১০ম শ্রেণির ছাত্রী নুপুরের (১৫) বিয়ে বন্ধ করা হয় এবং বর ও কনের বাবাকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। সবশেষে বাগবাটি ইউনিয়নের মালিগাঁতী এলাকায় ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া লিমা খাতুনের (১২) কথিত বাল্যবিয়ে বন্ধ করে কনের বাবাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন