“আমরা তো করোনায় মরতাম না, তার আগেই না খাইয়া মইরা যামু”

0
426

নারায়ণগঞ্জে লকডাউনের মধ্যে ত্রাণের জন্য বিক্ষোভ মিছিল করেছে সদর উপজেলার কাশীপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নিম্ন আয়ের মানুষ। তাদের অভিযোগ—আইডি কার্ডের ফটোকপি জমা দেওয়ার পরও ত্রাণভোগীর তালিকা থেকে বাদ পড়েছে তাদের নাম ।
দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার সকাল থেকে ফতুল্লার কাশীপুর ছোট আমবাগান এলাকায় খাদ্য সামগ্রী না পেয়ে লকডাউন ভেঙ্গে ত্রাণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন নিম্ন আয়ের বর্তমানে কর্মহীন মানুষ। এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরেই খাদ্য সংকট এখানকার মানুষদের।
আয় নেই খাবারও নেই। এর মধ্যে স্থানীয় মেম্বার ও জনপ্রতিনিধিদের নাম করে তাদের কাছ থেকে ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি নেওয়া হয়েছে ত্রাণ দেওয়া হবে বলে। বুধবার সকালে সেটি ফিরিয়ে দেওয়া হলেও ত্রাণ দেওয়া হয়নি। তাই বিক্ষোভ শুরু করেন এলাকাবাসী।
বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেওয়া সফুরা বিবি জানান ‘আমাদের তো ঘরে দুদিন ধরে খাবার নেই। খালি শুনি পুরা নারায়ণগঞ্জে নাকি খাবার দিতাসে কিন্তু আমাদের এখানে তো কেউই খাবার দেয়না। কিসের দূরে দূরে থাকমু! আমরা তো করোনায় মরতাম না, তার আগেই না খাইয়া মইরা যামু। আইডি কার্ডের ফটোকপি নিসিলো আজকে আবার দিয়া গেসে কিন্তু খাবার তো দিলোনা।’
উল্লেখ্য, দেশজুড়ে যখন লাখ লাখ মানুষ না খেয়ে মরার উপক্রম হয়েছে, তখনও আওয়ামী গুণ্ডারা তাদের চুরি-ডাকাতি-ধর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে নিপীড়িত এই জনসাধারণের উপর। দেশজুড়ে গরীব মানুষের চাল চুরি করছে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা, আবার চাল দেওয়ার নামে ধর্ষণও করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন