ত্রাণে অনিয়ম চলছেই, স্বজনপ্রীতির অভিযোগ

0
575
ত্রাণে অনিয়ম চলছেই, স্বজনপ্রীতির অভিযোগ

ত্রাণ নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় চলছে নয়ছয়। কারও কারও বিরুদ্ধে উঠেছে স্বজনপ্রীতির অভিযোগও। চট্টগ্রামের পটিয়ায় ত্রাণ বিতরণে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ করায় নুর হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে মারধর করেছেন হুইপ অনুসারী হিসেবে পরিচিত জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের এয়াকুবদন্ডী ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শাহাদাত হোসেন সবুজ। এ ব্যাপারে গত ১১ এপ্রিল ইউপি সদস্য সবুজসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৮-১০ জনের বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই ব্যক্তি।

বিডি প্রতিদিন সূত্রে জানা যায়, পটিয়ার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি হিসেবে ইউপি সদস্য শাহাদাত হোসেন সবুজ এলাকায় সম্প্রতি ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে এলাকার বেশকিছু দরিদ্র মানুষকে বাদ দেন। এর প্রতিবাদ করলে নুর হোসেনকে ডেকে নিয়ে সবুজ ৮-১০ জন লোক দিয়ে মারধর করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

জানা গেছে, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপির ত্রাণ সহায়তা টিম উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছে। তবে এসব ত্রাণ অনেক দরিদ্র ও দিনমজুররা পাচ্ছেন না।

নিজেদের পছন্দমতো লোককে ত্রাণের কিছু প্যাকেট ধরিয়ে দিয়ে ফটোসেশন করে গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠাচ্ছেন।

হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর ছোট ভাই মুজিবুল হক চৌধুরী নবাবও প্রতিদিন হুইপের পক্ষে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে চাল, ডাল, আলু, সাবান, মাস্ক ও হেক্সিসল বিতরণ করা হচ্ছে বলে গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করেন। এছাড়া পটিয়া ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী নিজ অর্থায়নে উপজেলার ১৭ ইউনিয়ন ও পটিয়া পৌরসভায় ইতোমধ্যে ৬ হাজার পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে ভোটার আইডি কার্ড না থাকলেও অসহায়, গরিব ও দুস্থ ব্যক্তিদের ত্রাণ দিতে সরকার নির্দেশনা থাকলেও তা পটিয়ায় মানা হচ্ছে না বলে জানা গেছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন