বাংলাদেশে ভারতীয় মালাউন সেনা পাঠানোর হুমকি বিজেপি নেতার

11
1205
বাংলাদেশে ভারতীয় মালাউন সেনা পাঠানোর হুমকি বিজেপি নেতার

বাংলাদেশে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পক্ষে একটি ভিডিও টুইটারে শেয়ার করে ইন্ডিয়ার ক্ষমতাসীন সন্ত্রাসী বিজেপি দলের নেতা এবং রাজ্যসভার সদস্য সুব্রামানিয়াম স্বামী মোদি সরকারকে আহবান জানিয়ে বলেছে, ‘বাংলাদেশ সরকারকে কঠোরভাবে বলা দরকার, এদের দমন করুন। অথবা বাংলাদেশ সরকারের হয়ে দমন করার কাজটি ইন্ডিয়া সেনা পাঠিয়ে করে দিতে পারে।’

গত (২ নভেম্বর) সোমবার নিজের টুইটারে এ হুমকি দেয়।

ভিডিও পোস্টটিতে দাবি করা হয়, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফ্রান্সের পক্ষে এক হিন্দু ব্যক্তির সমর্থনকে ঘিরে কুমিল্লায় হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, ফ্রান্সে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে যখন ক্ষোভে ফুসে উঠেছে বিশ্বের তাবৎ মুসলিমরা। ঠিক তখনই মুসলিমদের ক্ষোভে ঘি ঢালে কিশোর দেবনাথ কিষান নামের এক মালাউন মুশরিক। সে ফ্রান্স প্রবাসী কুমিল্লার মুরাদনগরের বাসিন্দা। এই মালাউন ফ্রান্সের নবী অবমাননায় পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে ফেইসবুকে পোস্ট করে। পোস্টে সে ইসলাম বিরুধী সব ঔদ্ধত্যপূর্ণ বার্তা দেয়। সে আরোও লিখে ফ্রান্সে কেবল তারাই বসবাস করতে পারবে যারা ফ্রান্সের বাক-স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে। তার পোস্টকে সমর্থন করে তারই চাচা শংকর দেবনাথ ও অনিল নামের দুই মালাউন।

এ ঘটনায় স্থানীয় মুসলিমরা বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ করেন। আর এ ঘটনায় বাংলাদেশি হিন্দুদের সমর্থনে এ দেশে সেনা পাঠানোর হুমকি দিয়ে টুইটারে পোস্ট করে মালাউন সুব্রাহ্মনিয়ম স্বামী।

এর আগেও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকবার আক্রমণাত্মক মন্তব্য করেছিল বিজেপির এই নেতা। ২০১৪ সালে ইন্ডিয়ার লোকসভা নির্বাচনের আগে সুব্রামানিয়াম দাবি করেছিল, ‘বাংলাদেশের এক-তৃতীয়াংশ মানুষ ইন্ডিয়াতে বাস করে… বাংলাদেশ তাদের ফেরত না নিলে ইন্ডিয়াকে জমি ছেড়ে দেওয়া উচিত…’। (সমকাল, ২৭ এপ্রিল, ২০১৪)।

২০১১ সালেও তিনি হুমকি দিয়েছিল, (বাংলাদেশের) অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ইন্ডিয়ার উচিত সিলেট থেকে খুলনা পর্যন্ত এক-তৃতীয়াংশ ভূমি দখল করে নেওয়া। (বিডিনিউজ২৪, ১২ ডিসেম্বর ২০১১)।

২০১৮ সালে এসে হিন্দুত্ববাদী এই ব্যক্তি বলেছিল, বাংলাদেশে জোর করে হিন্দুদের ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে। এ ছাড়া মন্দিরে ভাঙচুর চালানোর পর সেগুলো দখল করা হচ্ছে। আর এগুলো বন্ধ না হলে বাংলাদেশ দখল করা হবে(যুগান্তর, ০১ অক্টোবর ২০১৮)।

 

11 মন্তব্যসমূহ

  1. ওহে মালাউনের দলেরা তোরা আসতে চাইলে দ্রুত এসে পর,আমরা প্রস্তুত আছি ইনশাআল্লাহ ,, ,, ,, ,, !! তোদেরকে জাহান্নামে পাঠানোর ফ্রী টিকেট দেয়া হবে ,, ,, ,, একটা টাকাও তোদের থেকে গ্রহণ করা হবেনা…. শুধু বিনা টাকায় একটা করে হাতে জাহান্নামের টিকেট ধরিয়ে দেয়া হবে ইনশাআল্লাহ ,, ,, ,, ,, ,, !! তোদের আসার অপেক্ষায় রইলাম ,,,!!

  2. মডারেটর ভাইদের কে অনুরোধ করে বলছি ,, ,, ,, ,, ,, আপনার এ মালাউনদের ছবি সহ আপলোড করার চেষ্টা করুণ,,,,সময় মতো ওদের বিরুদ্ধে আমাদের একশন নিতে অনেক সহজ হবে ইনশাআল্লাহ,,, !!
    জাযাকুমুল্লাহু খাইরান আইয়ূহাল ইখওয়াহ,,,,!!

  3. হে গোমুত্র পানকারী শুনে রাখ ৷ শাহাদাতের আশায় আছি, আমরা মুসলিম জাতি মিত্যুকে শরাব ও সুন্দুৱী নারী থেকে বেশি ভালো বাসি৷ এখন তোদেরকে উচিত শিক্ষা দিব ৷আয়ে বাংলাদেশে, ইনশাআল্লাহ

  4. আয় ! এটা কাশ্মীর না । আসলে তোদের বুঝিয়ে দিব । শাহাদাতের নেশায় ডুব আছি । সবার উচিত গাজওয়াতুল হিন্দের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া ।
    ওরা এদেশে হিন্দু নির্যাতন হলে এদেশে সেনা পাঠানোর হুমকি দেয় , এদেশ দখল করে নেওয়ার হুমকি দেয় তাই ওরা ভাল । আর দিল্লিতে , কাশ্মীরে মুসলিম নির্যাতনের বিরুদ্ধে কথা বললে আমরা হয়ে যাই জঙ্গি , শিবির । কাশ্মীরে মুসলিমদের উপর নির্যাতনের বিষয়ে ফেসবুক স্ট্যাটাস দিলে আমাদেরও শহীদ আবরার ফাহাদ (রহঃ) এর মত অবস্থা হবে । এটা করবে এদেশের আওয়ামী লীগ ওরফে ভারত লীগ ।
    ওরা টুইট করলে হয় সুশীল আর আমরা ফেসবুক স্ট্যাটাস দিলে হয়ে যাই জঙ্গি , খারেজি , শিবির ।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন