গুজরাটে মুসলিমবিরোধী নতুন আইন : আমিষ খাবার বিক্রিতে জরিমানা!

উসামা মাহমুদ

0
665
গুজরাটে মুসলিমবিরোধী নতুন আইন : আমিষ খাবার বিক্রিতে জরিমানা!

আমিষ মানব দেহ গঠনের ক্ষেত্রে একটি অন্যতম প্রধান উপাদান। কোষ গঠনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কাজ করে। এছাড়াও দেহের প্রত্যঙ্গগুলো এবং টিস্যু বা কলা নিয়ন্ত্রণ করে।

কিন্তু বিজেপির শাসন শুরু হওয়ার পর থেকেই হিন্দুত্ববাদের নামে বহু নিয়ম পরিবর্তন করা হয়েছে ভারতে। গরুর মাংস খাওয়া নিষিদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের বহু শহরের নাম পরিবর্তন- এই সবকিছুই হয়েছে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে।

এবার প্রকাশ্যে আমিষ খাবার বিক্রিও নিষিদ্ধ হতে চলেছে গুজরাটের বডোদরায়। শরিয়াহ মোতাবেক যে সমস্ত আমিষ জাতীয় খাবার হালাল সেগুলো সহজেই সংগ্রহ করা যেত। এখন এই আইনের ফলে হয়রানির শিকার হবে মুসলিমরা।

এই নিয়ম অমান্য করলেই জরিমানা দিতে হবে। যদিও এই প্রথম নয় এই ধরনের নিয়ম আগেও বিজেপি শাসিত বহু রাজ্যে চালু করার চেষ্টা করা হয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী কষাই মোদীর রাজ্যে এই নিয়ম চালু হতে যাচ্ছে অতি শীঘ্রই। এই নির্দেশ দিয়েছে বডোদরা পুরসভার স্থায়ী কমিটির চেয়ারপার্সন হিতেন্দ্র পটেল।

সে বলেছে, আমিষ খাবার যেন বাইরে থেকে দেখা না যায়। তা পথচলতি মানুষের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দিতে পারে। প্রকাশ্যে আমিষ খাবার বিক্রি করা হয়তো দীর্ঘ দিনের রেওয়াজ, কিন্তু এখন সময় এসেছে সেই ভুল শুধরে নেওয়ার।”

হিন্দুত্ববাদীরা ভারতকে বৃহৎ গণতন্ত্রের দেশ হিসেবে বুলি আওড়াতো, কিছু নাদান মুসলিমও তাদের সুরে সুর মিলিয়ে নিজেদের অসাম্প্রদায়িক বলে পরিচয় দিতো। অথচ মুসলিমদের খাদ্যাভ্যাস থেকে শুরু করে যখন একের পর এক মুসলিমবিরোধী আইন করা হচ্ছে, তখন আর এই প্রগতিশীল বুদ্ধিজীবীদের কোন আওয়াজ পাওয়া যায় না।

বিশ্লেষকরা তাই বলছেন, হিন্দুত্ববাদী ভারত যখন তার মুসলিমবিদ্বেষী আসল চেহারা প্রকাশ করেই দিয়েছে, কোন ভনিতায় না ভুলে মুসলিমদের এখন অনাগত ভবিষ্যতের বিপদ মোকাবেলায় প্রস্তুতি নেওয়া উচিৎ।

তথ্যসূত্র:
——-
১. প্রকাশ্যে আমিষ খাবার বিক্রি করলেই দিতে হবে জরিমানা, নয়া আইন চালু হল গুজরাটের বডোদরায়
https://tinyurl.com/hxcyefsx

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন