আশ-শাবাবের পৃথক হামলায় আরও ৫৮ সেনা সদস্য হতাহত

ত্বহা আলী আদনান

1
753

পূর্ব আফ্রিকা ভিত্তিক জনপ্রিয় ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী হারাকাতুশ শাবাব গত ২৫ সেপ্টেম্বর সোমালিয়া জুড়ে বড় ২টি অপারেশন ছাড়াও একডজনেরও বেশি আক্রমণ চালিয়েছেন। আশ-শাবাবের এসব পৃথক হামলাগুলোতেও প্রায় ৯০ এর বেশি গাদ্দার সৈন্য নিহত এবং আহত হয়েছে।

এসব অভিযানের মধ্যে উল্লেখ যোগ্য কয়েকটি হচ্ছে –

বে রাজ্যের কানসাহেদির এলাকায় মুজাহিদদের পরিচালিত হামলা। যেখানে মুজাহিদদের হামলায় শহরটির ডেপুটি মেয়র “ইব্রাহিম আদম আবদালি” দখলদার ইথিওপিয়ান বাহিনীর ৪ সৈন্য নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে আরও ৩ সেনা।

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জিযু রাজ্যের বালাদে মুজাহিদদের অতর্কিত হামলা। এতে ১৫ সরকারী মিলিশিয়া নিহত ও আহত হয়েছে। যাদের মধ্যে ৩ কর্মকর্তার অবস্থা গুরুতর।

ঐদিন মুজাহিদগণ তাদের সর্বশেষ হামলাটি চালান জালাজদুদ রাজ্যের লাবদালি এলাকায়। যেখানে মুজাহিদদের হামলায় ৯ সেনা নিহত এবং আরও ২ সেনা সদস্য আহত হয়েছে।

জালাজদুদ রাজ্যের আজাধু শহরে পরিচালিত বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরণ। যাতে সরকারী মিলিশিয়া বাহিনীর ৬ সদস্যকে নিহত এবং আরও বেশ কিছু সেনা আহত হয়। সেই সাথে সোমালি সংসদ সদস্যদের একজন “সাইদ সিয়াদের” মালিকানাধীন একটি সামরিক গাড়ি ধ্বংস করা হয়।

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জিযু রাজ্যের “বালাদ হাওয়া” শহরতলিতে মুজাহিদদের পরিচালিত হামলা। যাতে দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা “আব্দুল রশিদ মোয়ালেম দাতাই” সহ সরকারি মিলিশিয়াদেরর ৫ সদস্য নিহত হয়। এই অভিযানে আহত হয় আরও বেশ কিছু সেনা সদস্য।

হিরান রাজ্যের বাল্ডউইন এবং বুও শহরে আশ-শাবাবের পৃথক হামলা। যার একটি চালানো হয় সামরিক কনভয়ে। এতে ৩ অফিসারসহ সরকারি মিলিশিয়াদের ৬ সদস্যকে নিহত হয়েছে। হামলায় আহত হয়েছে আরও কয়েকজন সেনা সদস্য। রাজ্যটিতে মুজাহিদদের দ্বিতীয় হামলায় আরও ২ সেনা নিহত এবং অপর ২ সেনা আহত হয়েছে।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন