ব্যবসায়ীদের জন্য সুখবর: আফগানিস্তানে সৃষ্টি হয়েছে বিনিয়োগের উত্তম পরিবেশ

- সাইফুল ইসলাম

1
479
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

বর্তমান বিশ্ব বেশ গতিশীল, আন্তঃসম্পর্কযুক্ত। তাই দেশ-বিদেশে বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধা বর্তমান সময়ে ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান উভয়কেই আকৃষ্ট করে। নিজেদের সম্পদ বাড়াতে এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জন করতে বিনিয়োগের সুযোগ খোঁজে সবাই। বিনিয়োগ সফল হবে না-কি ব্যর্থ হবে, কিছু বিষয় তা নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। বিনিয়োগের আগে তাই এই বিষয়গুলো নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করা দরকার, গভীরভাবে এগুলো বোঝা দরকার। বিনিয়োগের আগে অর্থনৈতিক সূচক, বৃদ্ধি, মুদ্রাস্ফীতির হার, এবং বাজারের প্রবণতা থেকে শুরু করে ঝুঁকি মূল্যায়ন, নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা এবং স্বচ্ছ নীতিমালার বিষয়গুলোও দেখতে হয়।

এই বিষয়গুলো বিবেচনায় ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তান জাতীয় ও আন্তর্জাতিক উভয় প্রকারের বিনিয়োগকারীদের জন্য একটি উপযুক্ত জায়গা। এখানে আছে নিরাপত্তা, ভালো অর্থনৈতিক অবস্থা, সর্বাধিক স্থিতিশীল মুদ্রাস্ফীতির হার এবং ব্যবসায়ের সহজ পরিবেশ। এখানকার সরকার ব্যবসায়ীদের কল্যাণে বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। এমনকি অর্থনীতি বিষয়ক উপ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে আন্তঃমন্ত্রণালয় বিনিয়োগ কমিটি। কাবুল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পর্যন্ত প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে বিনিয়োগ ডেস্ক। আফগানিস্তানে এসকল সুযোগ-সুবিধা গ্রহণের পূর্ণ সুযোগ রয়েছে বিনিয়োগকারীদের সামনে।

সম্প্রতি আফগানিস্তানের একজন প্রখ্যাত ব্যবসায়ী এবং আজিজি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা জনাব আজিজি একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আফগানিস্তানের রেলওয়ে ও বিদ্যুৎ খাতে তিনি ১০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করার ইচ্ছা রাখেন। হেরাত প্রদেশে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য তার আর্থিক সহযোগিতায় নির্মিত বাড়ি হস্তান্তরের সময় তিনি এই কথা বলেন। এমন উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বিনিয়োগ করার ইচ্ছা প্রকাশ আসলে আফগানিস্তানে বিনিয়োগের উপযুক্ত পরিবেশের নিশ্চয়তার ব্যাপারে এই অভিজ্ঞ ও প্রভাবশালী ব্যবসায়ীর আত্মবিশ্বাসের বহিঃপ্রকাশ। তিনি মনে করছেন, দীর্ঘ যুদ্ধ ও অস্থিতিশীলতার সময় অতিক্রম করে আফগানিস্তানে এখন নতুন বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সফলতার সম্ভাবনা ও নিশ্চয়তার পরিবেশ রয়েছে। নিঃসন্দেহে জনাব আজিজি এমন বৃহৎ অংকের বিনিয়োগের চিন্তা করার আগে আফগানিস্তানে ব্যবসায়ের পরিস্থিতি সতর্কতার সাথে বিশ্লেষণ করেছেন, মূল্যায়ন করেছেন।

একইভাবে, এর দুই দিন পর তুরস্কের ব্যবসায়ীরাও আফগানিস্তানের সৌরবিদ্যুৎ খাতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। ইমারতে ইসলামিয়ার প্রশাসনিক প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতকালে এমন আগ্রহের কথা বলেন তারা। হুররিয়াত রেডিও বলেছে,“তুর্কি ব্যবসায়ীরা আফগানিস্তানের খনি, উৎপাদন কারখানা, কৃষি, জ্বালানি এবং প্রযুক্তির মতো খাতে বিনিয়োগের জন্য তাদের আগ্রহ ও প্রস্তুতির কথা ব্যক্ত করেছেন। এসকল খাতে প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নের সম্ভাবনাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন তারা।”

ইতোমধ্যে আফগানিস্তানের পানি ও জ্বালানি মন্ত্রী মোল্লা আব্দুল লতিফ মানসুরের সাথে এক সাক্ষাতে বুরাক ওনসাল আফগানিস্তানের বায়ু শক্তি উৎপাদন প্রকল্পে বিনিয়োগের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। বুরাক ওনসাল ৭৭টি তুর্কি কোম্পানির ভাইস প্রেসিডেন্ট।

এছাড়াও, আফগানিস্তানের শুকনা খাবার প্রক্রিয়াকরণ ও প্যাকেজিংয়ে বিনিয়োগ করার আগ্রহ দেখিয়েছে একটি চীনা কোম্পানি। ইমারতে ইসলামিয়ার শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রী নুরুদ্দীন আজিজির সাথে এক সাক্ষাতে এমন আগ্রহ প্রকাশ করেছে চীনা কোম্পানির কর্মকর্তারা।

বিনিয়োগের জন্য উত্তম পরিবেশ সম্পন্ন সমৃদ্ধ দেশ খোঁজা হয়। আর এক্ষেত্রে সবচেয়ে উত্তম তো সেই পরিবেশ, যেখানে নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এবং নিরাপদ মুনাফা উপভোগের সমন্বয় রয়েছে। আর আফগানিস্তানে এখন সেই পরিস্থিতিই বিরাজমান রয়েছে। এখানে শক্তিশালী নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা যেমন আছে, তেমনি আছে সমৃদ্ধিশীল অর্থনীতি, ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ। এখানে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের অস্থিতিশীলতার ব্যাপারে চিন্তিত হতে হবে না। বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ গড়ে তুলতে আফগানিস্তানের সরকার আপ্রাণ প্রচেষ্টা চালিয়েছেন। এখানে আছে দৃঢ় আইনি কাঠামো এবং স্বচ্ছ নীতিমালা। যেকেউ বিনিয়োগ করে যেন মুনাফা উপভোগ করতে পারে, সেটা নিশ্চিত করতে সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টা রয়েছে আফগানিস্তানে।



ইমারতে ইসলামিয়ার অফিসিয়াল সাইট থেকে অনুদিত ও ঈষৎ পরিমার্জিত
মূল: ইঞ্জিনিয়ার দানিশ


 

তথ্যসূত্র:
———
1. Investment Opportunities in Afghanistan and Favorable Conditions
http://tinyurl.com/ycyraddz

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধটিটিপি নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে তাকমিল জামাআতের খতমে বুখারীর সমাপনী দৃশ্য
পরবর্তী নিবন্ধ“ডাকছে ফিলিস্তিন” শিরোনামে ভিডিও প্রকাশ