সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ

0
633
সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ

মৌলভীবাজার সদর উপজেলা সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন চলাকালীন সময়ে সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের দু’গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরে আওয়ামী দালাল পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কেন্দ্রীয় সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতে সোমবার দুপুরে মৌলভীবাজার পৌর জনমিলন কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্লোগান দেওয়াকে কেন্দ্র করে পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেনের বলয়ের দু’গ্রুপের মধ্যে চেয়ার ছোড়াছুড়ি, হাতাহাতি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

এসময় এক গ্রুপের নেতাকর্মীরা অন্য গ্রুপের নেতাকর্মীদের দিকে চেয়ার ছুড়ে মারে। এতে দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও সম্মেলন স্থলের জানালার গ্লাস ভাঙচুর করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে মঞ্চ থেকে পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেনসহ একাধিক অতিথি নেমে এসে চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।

পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ঘটনার জন্য সন্ত্রাসী ছাত্রলীগকে অভিযুক্ত করেছে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ। সে পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেনের নাম উল্লেখ করে বলেছে, ‘আমরা মনে করি এখানে দুজনই নেতৃত্বে আছে। তাদের মূল দায়িত্ব এই সম্মেলন যাতে সুন্দর ও সফলভাবে সম্পন্ন হয়।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিল কেন্দ্রীয় সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন।

উপস্থিত ছিল কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান, পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেন প্রমুখ।

সুত্রঃ বিডি প্রতিদিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন