এবার রাতের অন্ধকারে মহিলাদের পেটাল যোগীর পুলিশ!

0
147

বিক্ষোভকারীদের আন্দোলন থামাতে যোগীর সন্ত্রাসী পুলিশের বিরুদ্ধে দমননীতি প্রয়োগের অভিযোগ আগেও উঠেছে। রাতের অন্ধকারে লেপ-কম্বল কেড়ে নেওয়ার পর এ বার মহিলা বিক্ষোভকারীদের লাঠি দিয়ে পেটানোর অভিযোগ উঠল তাদের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার রাতে উত্তরপ্রদেশের এটাওয়ায় এমন ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার সময়কার বেশ কিছু ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়েছে। তাতে মহিলা বিক্ষোভকারীদের টেনে হিঁচড়ে হঠানোর চেষ্টা করতে দেখা গিয়েছে সন্ত্রাসী পুলিশকে। এমনকি বিক্ষোভস্থল থেকে মারতে মারতে তাদের বার করে দিতেও দেখা গিয়েছে ওই ভিডিওতে।

দিল্লির শাহিনবাগের অনুপ্রেরণায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে পথে নেমেছেন উত্তরপ্রদেশের মহিলারাও। গত কয়েক দিন ধরে লখনউ, ঘণ্টাঘর-সহ বেশ কিছু এলাকায় অবস্থান বিক্ষোভ করছেন তাঁরা। মঙ্গলবার বিকালে এটাওয়ার পচরাহায় প্রায় ১৫০ মহিলা জড়ো হন। সন্ধ্যা গড়াতে সংখ্যাটা বেড়ে প্রায় ৫০০ হয়। তাদের উপর নজর রাখতে এলাকায় বিশাল সন্ত্রাসী পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করে এটাওয়া প্রশাসন।

কিন্তু শুধু নজরদারি চালানোর বদলে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বলে অভিযোগ। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, ভিড়ের মধ্যে ঢুকে টেনে হিঁচড়ে প্রতিবাদীদের সরানোর চেষ্টা করছে পুলিশ। বাধা দিতে গেলে প্রতিবাদীদের ধাক্কা মেরে ফেলেও দেয়া হয়। আর একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, সরু গলি দিয়ে প্রতিবাদীদের বার করে নিয়ে যাওয়ার সময় রীতিমতো তাদের তাড়া করছে পুলিশ। লাঠি দিয়ে মারা হচ্ছে তাদের।

মহিলা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই ওই ভিডিওটি রিটুইট করা হয়েছে। তাতে নিন্দার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে এটাওয়া পুলিশের দাবি, বিক্ষোভকারীরাই প্রথম তাদের লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে। পরিস্থিতি সামাল দিতে সেখানে শুধুমাত্র মহিলা পুলিশই নামানো হয়েছিল বলেও দাবি করেছে তারা। যদিও এর সত্যতা প্রমাণ হয়নি। যে ভিডিওগুলো সামনে এসেছে, সবক’টিই রাতের অন্ধকারে তোলা। তাই মহিলাবাহিনী বিক্ষোভকারীদের পেটাচ্ছে নাকি পুরুষবাহিনী তা বোঝা যায়নি।

সূত্রঃ ইনকিলাব

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন