‘দ্বিতীয় দফা’ সংক্রমণে শীর্ষ তালিকায় এবার ভারত

0
716
‘দ্বিতীয় দফা’ সংক্রমণে শীর্ষ তালিকায় এবার ভারত

জনসংখ্যার দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। এখন প্রতিদিন দেশটিতে নতুন করে ১০ হাজারের বেশি লোক করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। এর মধ্যেই গত ৮ জুন ভারতজুড়ে লকডাউন শিথিল করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ বা সেকেন্ড ওয়েভে ভারতে বড় বিপর্যয় নেমে আসতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। জাপানের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, সেকেন্ড ওয়েভে যেসব দেশের পরিস্থিতি মারাত্মক হবে এমন ১৫টি দেশের তালিকায় রয়েছে ভারত।

এদিকে গতকাল পর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৭৬ হাজার ৫৮৩ জনে। এর ওপরে রয়েছে স্পেন, সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৮৯ হাজার ৪৬। কিন্তু ভারতে যেখানে লাফিয়ে লাফিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে এতে খুব শিগগিরই স্পেনকে টপকে যাবে দেশটি। কেননা স্পেনে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা খুবই কম।

ভারতে সংক্রমণ বৃদ্ধির মধ্যেই গত সোমবার অফিস, আদালত, রেস্তোরাঁ, শপিংমলসহ উপাসনালয় খুলে দেওয়া হয়েছে। অর্থনীতির চাকায় গতি আনতেই এ পথ বেছে নিয়েছে দেশটির সরকার। তবে বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন এতে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে পারে। এমন হলে ভারতে আবার লকডাউন জারি করা লাগতে পারে। খবর: আমাদের সময়

জাপানের গবেষণা প্রতিষ্ঠান নমুরা (ঘড়সঁৎধ) জানিয়েছে, করোনা আক্রান্তের সূচকে ঝুঁকিপূর্ণ ১৫ দেশের মধ্যে রয়েছে ভারত। প্রতিষ্ঠানটি জরিপ করা হয়েছে বিশ্বের ৪৫টি বড় অর্থনীতির ওপর। এতে লকডাউন তোলার পর করোনা আক্রান্ত কতটা বাড়ছে তার হিসাব করা হয়।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ বা সেকেন্ড ওয়েভের ঝুঁকি প্রবল, এমন দেশগুলোর তালিকায় প্রথম সারিতেই রয়েছে ভারত।

এতে আরও বলা হয় ‘জরিপে একটি মিশ্র ফল পাওয়া গেছে। অর্থনীতির বড় অংশ খুলে গেছে এমন ১৭টি দেশে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ আসার লক্ষণ নেই। ১৩টি দেশের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা নাকচ করা যাচ্ছে না। ১৫টি দেশের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, দ্বিতীয় ঢেউকের ঝুঁকি প্রবল। এ সর্বোচ্চ ঝুঁকির তালিকায় রয়েছে ভারত।

জরিপে ৪৫টি দেশকে তিন ভাগে রাখা হয়েছে। প্রথম ভাগে হলো-অন ট্র্যাক অর্থাৎ সব কিছু স্বাভাবিক। দ্বিতীয় হচ্ছে, ওয়ার্নিং সাইনস বা সতর্কতামূলক লক্ষণ এবং তৃতীয় হলো ডেঞ্জার জোন বা দ্বিতীয় ঢেউয়ের ঝুঁকি প্রবল। ভারতের নাম রয়েছে সর্বশেষ তৃতীয় অর্থাৎ ডেঞ্জার জোনে।

ভারতের সঙ্গে রয়েছে ইন্দোনেশিয়া, চিলি, পাকিস্তান, সুইডেন, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ আফ্রিকা ও কানাডা। দ্বিতীয় ঢেউয়ের ঝুঁকি নেই বললেই চলে এমন তালিকায় রয়েছে ফ্রান্স, ইতালি ও দক্ষিণ কোরিয়া। এ ছাড়া জার্মানি, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য রয়েছে ঝুঁকিপ্রবণ দেশের তালিকা।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন