আফগানিস্তান ও ইরাকে হামলায় সহযোগিতা করায় কুয়েতের আমীরকে ট্রাম্পের সম্মাননা প্রদান

1
640
আফগানিস্তান ও ইরাকে হামলায় সহযোগিতা করায় কুয়েতের আমীরকে ট্রাম্পের সম্মাননা প্রদান

আফগানিস্তানের তালেবান ও ইরাকের মুসলিমদের উপর আমেরিকার হামলায় সহযোগিতা করায় কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল-আহমাদ আল-জাবের আল সাবাহকে সামরিক সম্মাননা দিয়ে পুরস্কৃত করেছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

গতো ১৮ সেপ্টেম্বর হোয়াইট হাউসে এক অনুষ্ঠানে শেখ সাবাহ আল-আহমাদকে ‘দ্য লিজন অব মেরিট, ডিক্রি অব চিফ কমান্ডার’ সম্মাননা দেওয়া হয়। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ সংস্থা খালিজ টাইমস এই খবর দিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে কুয়েতের আমিরের প্রশংসা করে ট্রাম্প বলেন, আল সাবাহ আমেরিকার অকৃত্রিম বন্ধু। তিনি ইরাক ও সিরিয়ায় সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে আমাদের সাহায্যে করেছেন। এছাড়া ইরাকে ‘ইরাকি ফ্রিডম’ ও আফগানিস্তানে ‘অপারেশন এনডিরিং ফ্রিডম’ সফল করতে তার ভূমিকা ছিল অপরিসীম।

বর্তমানে আমেরিকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন কুয়েতের এই আমীর। অসুস্থ থাকায় তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে পুরস্কারটি গ্রহণ করতে পারেননি। তার পক্ষ থেকে পুরস্কারটি গ্রহণ করেন তার ছেলে শেখ নাসের সাবাহ আল-আহমদ আল-সাবাহ।

সংবাদ সংস্থাটি বলছে, আমেরিকা এই সম্মাননাটিকে খুবই মর্যাদাপূর্ণ হিসেবে দেখা হয়। ১৯৯১ সালের পর আমেরিকার প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে এই প্রথম কাউকে ‘দ্য লিজন অব মেরিট, ডিক্রি অব চিফ কমান্ডার’ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়েছে।

১টি মন্তব্য

  1. নাউজুবিল্লাহ,, এরা মুসলিম দেশের শাসক???? এদেরকে ধরে ধরে জবাই করে দিলেও শাস্তি কম হবে। এ-ই জঘন্য কাজ করার পরও কুয়েতের মুসলিমরা থাকে ক্ষমতাচ্যুত করে নাই!???? মনে দেশের অবস্থাও তাই।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন