গাজায় ইসরাইলি হামলার কেন একনিষ্ঠ সমর্থক ছিল হিন্দুত্ববাদী ভারত?

3
1153
গাজায় ইসরাইলি হামলার  কেন একনিষ্ঠ সমর্থক ছিল হিন্দুত্ববাদী ভারত?

অবরুদ্ধ গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলার বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় উঠলেও ইহুদিরা ভারতীয় হিন্দুত্ববাদীদের সমর্থন হামলার শুরু থেকেই পেয়ে আসছে।

ইসরাইল ফিলিস্তিনের পূর্ব জেরুজালেম ও অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় অব্যাহত বিমান হামলা চালানোর ফলে বিশ্বব্যাপী সমালোচিত হয়েছে, কিন্তু হিন্দুত্ববাদী ভারতীয় প্রশাসন ফিলিস্তিনি মুসলিমদের বিরোধিতা করার পাশাপাশি ইহুদিদের বর্বরোচিত হামলার শুরু থেকেই প্রশংসা করে প্রেরণা যুগিয়ে গেছে।

জানা যায়, ফিলিস্তিনে ইসরাইলের দমন-পীড়ন বৃদ্ধি পাওয়ার পর, হিন্দুত্ববাদী ভারতে দখলদার ইসরাইলের সমর্থনে “আমি ইসরাইলকে সমর্থন করি”, “ভারত ইসরাইলের পাশে আছে”, ইত্যাদি হ্যাশট্যাগগুলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয়রা সর্বোচ্চ সংখ্যক ট্যাগ করে। অনেক ভারতীয়রা ফিলিস্তিনি মুসলিমদের “জঙ্গি” বলেও উপহাস করে।

গত ১৫, মে শনিবার টুইটারে “ফিলিস্তিনিরা জঙ্গি” হ্যাশট্যাগটি হিন্দুয়ানী ভারতে সর্বোচ্চ সংখ্যক ট্যাগ করা হয়।

উল্লেখ্য, অবরুদ্ধ গাজায় গত ১১ দিনে চলমান ইসরাইলি বিমান হামলায় কমপক্ষে ২৪৩ ফিলিস্তিনি নিহত হন, যাদের ৬৬ জন শিশু, ৩৯ জন নারী, ১৭ জন বয়ষ্ক লোক রয়েছেন। আহত ১ হাজার অধিক মুসলিম। ঘরবাড়ি হারিয়েছেন প্রায় ২০ লক্ষ্য ফিলিস্তিনি। পশ্চিম তীরে ইহুদি উচ্ছেদ অভিযান বিরোধী বিক্ষোভে ইসরাইলি সৈন্যরা গুলি চালিয়ে কমপক্ষে ১৯ জন মুসলিমকে হত্যা করেছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) শীর্ষ নেতা, আইনজীবী, সাংবাদিক সহ অন্যান্যরা সোশ্যাল মিডিয়ায়, বিশেষ করে টুইটার ও ইনস্টগ্রামে ইসরাইলি আগ্রাসনের সমর্থন দিয়ে গেছে।

গত ১২, মে, বুধবার মুসলিম বিরোধী বক্তৃতা দেয়ার জন্য পরিচিত, হিন্দুত্ববাদী বিজেপির সংসদ সদস্য তেজস্বী সূর্য টুইটারে লিখেন,”আমরা ইহুদিদের সাথে আছি। ইসরাইল শক্তিশালী থাকো।”

ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়ার জবাবে তার টুইটকৃত পোস্টটিতে প্রায় ৫০ হাজার লাইক পড়ে এবং অন্তত ১৩ হাজার বার পুনঃটুইট করা হয়।

উত্তর ভারতের চন্ডীগড় শহরের বিজেপি মুখপাত্র গৌরব গোয়েল ইসরাইলের সমর্থনে নিয়মিত টুইট করে ইসরাইলকে প্রেরণা যুগিয়েছেন।

গৌরব গত ১৪, মে শুক্রবার ইসরাইলি সেনাবাহিনীর ছবি টুইট করে লিখেন,”প্রিয় ইসরাইলিরা, আপনারা একা নন। আমরা ভারতীয়রা আপনাদের পাশে দৃঢ়ভাবে আছি।” টুইটটি ৩৬০০ বার ভারতীয় হিন্দুরা পছন্দ করেছে।

গত ১৫, মে শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ সহ ১ লক্ষ ৩৪ হাজার অনুসারী নিয়ে আরেক উগ্র হিন্দুত্ববাদী হার্দিক ভাবসার টুইটারে আল জাজিরা সহ অন্যান্য স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মিডিয়া অফিসে ইসরাইলি বিমান হামলার ভিডিও শেয়ার করে।

ইসরাইলি দখলদারিত্ব বিরোধী ভারতীয়দের নিয়ে ঠাট্টা-বিদ্রুপ করে টুইট করে লিখে,”শুভ দীপাবলি উদারপন্থীরা!”
“ভারত ইসরাইলের পাশে আছে।”
ইসরাইলি বিমান হামলাকে সে হিন্দুদের দীপাবলি পূজার সাথে তুলনা করে, যা প্রায় ৩ হাজার ভারতীয় হিন্দু পছন্দ করেন।

গত ১৬, মে, রবিবার ভারতীয় লেখক ও সাংবাদিক রানা আইয়ুব সোশ্যাল মিডিয়ায় উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের ক্রমবর্ধমান মুসলিম বিদ্বেষ বিশ্লেষণ করে বলেন,”ভারতের হিন্দুদের ইসলাম বিদ্বেষ, গণহত্যায় মুসলিমদের রক্তপাত কামনা করা ও তাদের ক্ষতি দেখতে চাওয়া ভারতীয় মুসলিমদের নিরাপত্তায় বিরাট হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে।”

তিনি বলেন,”বেশিরভাগ মুসলিম বিদ্বেষী সোশ্যাল মিডিয়ায় এক বা একাধিক বিজেপির মন্ত্রী বা প্রধানমন্ত্রী নিজেও অনুসরণ করছেন।”

তথ্য উপাত্ত, প্রশাসন ও ইন্টারনেট নিয়ে কাজ করা লেখক ও গবেষক শ্রীনিবাস কোডালি আল জাজিরাকে জানান, “হিন্দুত্ববাদীদের একটি গোষ্ঠী রয়েছে, যারা ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরাইলি পদক্ষেপগুলি মনেপ্রাণে সমর্থন করে কারণ এতে মুসলিমরা নির্যাতিত হচ্ছে।”

তিনি বলেন,”মুসলিমদের প্রতি ভারতীয় হিন্দুত্ববাদীদের তীব্র ঘৃণা রয়েছে, যার ফলে মুসলিমদের উপর ইসরাইলি হামলা ভারতের হিন্দুদের আনন্দিত করে।”

3 মন্তব্যসমূহ

  1. হে গোমূত্র পানকারী নাপাক মালাউন জাহান্নামের কীটেরা!তোরা অপেক্ষা কর, আমরা আসছি; আমরা তোদের কে হত্যা করব। তোদের মহিলাদেরকে আমরা দাসী বানাবো। তোদের দেনা পাওনা আমরা কড়াই গন্ডায় বুঝিয়ে দিবো। গঙ্গা স্নান নয় তোদেরকে রক্ত দিয়ে গোসল করিয়েই আমরা ক্ষ্যান্ত হবে বিইযনিল্লাহ।হে আল্লাহ আপনি আমাদেরকে তাওফীক দান করুন। আমীন ইয়া রব্বাশ শুহাদায়ি ওয়াস সালিহীন।

  2. এই সব মালঊন হিন্দুদের জন্যই আমাদের কিছু মুসলিম ভাই অক্সিজেন দিয়ে সাহায্য করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিল। আজ সেই ভাইয়েরা কোথায়! ফিলিস্তিনের মুসলিমদের বিরুদ্ধে যখন মালঊন হিন্দুরা একের পর এক অপবাদ দিয়ে যাচ্ছে, তখন সেই ভাইয়েরা হিন্দুদের বিরুদ্ধে কিছু বলছেন না কেন?

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধআল-শাবাবের সাফল্য রুখতে সোমালিয়ায় বিশেষ বাহিনী পাঠাবে যুক্তরাজ্য
পরবর্তী নিবন্ধমার্কিন ঘাঁটি স্থাপন নিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলিকে তালিবানের হুশিয়ারী