সোমালিয়া | প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কনভয়ে মুজাহিদদের বীরত্বপূর্ণ হামলা, ২৬ এরও বেশি মুরতাদ সেনা হতাহত

2
1404
সোমালিয়া | প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কনভয়ে মুজাহিদদের বীরত্বপূর্ণ হামলা, ২৬ এরও বেশি মুরতাদ সেনা হতাহত

পূর্ব আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ায় দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কনভয়সহ দু’টি স্থানে বীরত্বপূর্ণ দুটি অভিযান পরিচালনা করেছেন হারাকাতুশ শাবাব মুজাহিদিন। এতে কমপক্ষে ১৩ মুরতাদ সেনা নিহত এবং আরও ১৩ এরও বেশি মুরতাদ সেনা আহত হয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, গত ৭ আগস্ট শনিবার, বার্সাঞ্জোনি শহরে মুরতাদ সরকারি মিলিশিয়াদের ঘাঁটিতে তীব্র হামলা চালিয়েছেন আল-কায়েদা হারাকাতুশ শাবাব। মুজাহিদদের উক্ত আক্রমণের ফলে অফিসারসহ সরকারি মিলিশিয়া বাহিনীর কমপক্ষে ৮ সদস্য নিহত এবং আরও ৭ মুরতাদ সদস্য আহত হয়েছে, পাশাপাশি মুজাহিদগণ মুরতাদ বাহিনী থেকে প্রচুর অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম গনিমত পেয়েছেন।

সূত্র থেকে জানা গেছে, দক্ষিণ সোমালিয়ার জুবা রাজ্যের কাসমায়ো উপশহরে বরকতময় এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এদিন মধ্য সোমালিয়ার মাদাক রাজ্যে সোমালিয় মুরতাদ বাহিনীর একটি সামরিক কনভয় টার্গেট করে ভারী অস্ত্রশস্ত্র দ্বারা আরো একটি বীরত্বপূর্ণ অভিযান চালিয়েছেন হারাকাতুশ শাবাব মুজাহিদিন।

হামলার প্রাথমিক ফলাফল থেকে জানা গেছে, উক্ত অভিযানে গ্রাউন্ড ফোর্সেস কমান্ডার “তায়েব”, কর্নেল পদমর্যাদার এক অফিসার সহ ৫ মুরতাদ সেনাকে হত্যা করেছেন আশ-শাবাব মুজাহিদিন, মুজাহিদদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছে আরও ৬ এরও বেশি মুরতাদ সেনা সদস্য। ধ্বংস হয়েছে মুরতাদ বাহিনীর একটি সামরিক যান।

জানা যায় যে, মুজাহিদদ হামলার লক্ষ্যবস্তু পরিণত হওয়া উক্ত সামরিক কনভয়ে থখন সোমালি স্থল বাহিনীর কমান্ডার, জেনারেল “বাইজি” এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও ছিল। কিন্তু তারা অবস্থা নাজুক দেখে আগেই পালিয়ে গেছে।

সোমালিয়া | প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কনভয়ে মুজাহিদদের বীরত্বপূর্ণ হামলা, ২৬ এরও বেশি মুরতাদ সেনা হতাহত

2 মন্তব্যসমূহ

  1. মুহতারাম ভায়েরা!
    আপনাদের এই খেদমত আল্লাহ তায়ালা কবুল করুন!!
    উম্মাহ যখন দুশমনদের পরাজয় দেখে, তখন তাদের অন্তর শিতল হয়…অন্তর প্রশান্ত হয়…মহান আল্লাহ তায়ালাকে( إن تنصروا الله ينصركم ويثبت أقدامكم)সাহায্য করার জন্য উদগ্রীব হয়..
    এই সংবাদগুলোর অকল্পনীয় প্রভাব আছে..
    মানুষের সাধারণ একটা প্রবনতা হলো, মানুষ যেই বিষয়টা নিজ চখে দেখতে পায়, সেটার প্রতি বিশ্বাস বেশি থাকে।
    কোন জিনিষ নিজ চখে না দেখে যদি শুধু শুনে, সেটা নিয়ে আকাশ-কুসুম চিন্তা ভাবনা করে।
    দাজ্জালি মিডিয়ার অপপ্রচারে মুসলিমদের অন্তরে যেই ভয় ও হতাশার অন্ধকার প্রবেশ করেছে, এই সংবাদগুলোর মাধ্যমে তাদের অন্তর থেকে সেই ভয় দূর করে আশার আলো জ্বালানো সম্ভব।
    তাই মুহতারাম ভাইয়েরা!!
    আপনারা যদি একটু কষ্ট করে, কুফফারদের ওপর আক্রমণের যেই পরিমাণ সংবাদ এখন দেওয়া হয়, এর চেয়ে একটু বেশি দিতেন, তাহলে অনেক ভালো হতো।
    আরেকটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, AFN redio এই চ্যানেলটা প্রতি যদি একটু নজর দিতেন..
    দাওয়াতের ময়দানে এইটা অনেক কাজে আসে। কারণ ইউটিউব সবাই ব্যবহার করে।
    উম্মাহর যুবকেরা যখনই সংবাদ গুলো দেখতে পায়, তখন তাদের অন্তর প্রশান্ত হয়, তারা আরো উৎসাহিত হয়, নতুনভাবে আশার আলো দেখতে শুরু করে।
    আল্লাহ আমাদের সবাইকে কবুল করুন।

  2. আলহামদুলিল্লাহ ভাইয়েরা আল্লাহ আপনাদের খেদমত কে কবুল ফরমান afn এর প্রতি আসা করি আপনারা একটু দৃস্টিপাত করবেন ইনশাআল্লাহ আল্লাহ আপনাদেরকে হিফাজত করুন আমিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন