বিক্ষোভকারীদের উপর নির্বিচারে গুলি নিক্ষেপ ও রাশিয়াকে হস্তক্ষেপের আহ্বান কাজাখ সরকারের

ইউসুফ আল-হাসান

0
969
বিক্ষোভকারীদের উপর নির্বিচারে গুলি নিক্ষেপ ও রাশিয়াকে হস্তক্ষেপের আহ্বান কাজাখ সরকারের

কাজাখস্তানে গত ২ জানুয়ারি এলপিজি গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে শুরু হওয়া বিক্ষোভ ক্রমশ বেড়ে ছড়িয়ে পড়ে পুরো দেশে।

তবে, নিজ ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে রাখতে কাজাখস্তানের জনগণের উপর গুলি চালাতে একটুও দ্বিধা করছে না দেশটির সেক্যুলার সরকার৷ এমনকি ক্ষমতা আঁকড়ে রাখতে রাশিয়া থেকে সেনাবাহিনী চেয়ে এনেছে।

বিক্ষোভ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে বিক্ষোভকারীদের ‘দেখা মাত্র’ গুলি চালানোর নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সরকার। শুক্রবার এক সরকারি আদেশে এ সম্পর্কে বলা হয়, গুলি চালানোর আগে তাদের সতর্ক করার কোনো প্রয়োজন নেই সেনা সদস্যদের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, নির্বিচারে গুলি নিক্ষেপ করছে সেনাবাহিনী। ভিডিওতে কয়েকজনের লাশ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে থাকতে দেখা যায়। গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, এ পর্যন্ত গুলিতে ২৬ বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। তবে বাস্তব মৃত্যুর সংখ্যা আরও বেশি হবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

সেই সাথে রাশিয়ার দালাল কাযাখ সরকার একপর্যায়ে রাশিয়াকে আহ্বান জানিয়েছে নিজ দেশের নাগরিকদের দমনে রুশ সেনা পাঠাতে। মুসলিম নামধারি এই ইসলামবিদ্বেষী শাসকেরা দুনিয়াজুড়েই তাদের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে তাদের বিদেশি প্রভুদের পদলেহন করে। আর মুসলিমদের বিরুদ্ধে ঐ ভিনদেশি অবিশ্বাসীদেরকে আগ্রাসন চালানোর সুযোগ করে দেয়।

যুগে যুগে সকল জালিমরা নিজেদের ক্ষমতা আঁকড়ে রাখতে জনগণের উপর চালালিয়েছে নিপিড়ন। মানুষের স্বভাবজাত ধর্মই হচ্ছে এসব নিপিড়নের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা৷ তবে জুলুমের বিরুদ্ধ ইসলামহীন আন্দোলন করে নির্যাতনের মাত্রাকে কমানো যাবে না, জা আজ দেশে দশে প্রমাণিত।

একারণে ইসলামি চিন্তাবিদগণ বরাবরই এসব জালেম শাসকদের বিরুদ্ধে কথিত গণতান্ত্রিক নিষ্ফল আন্দোলনে না গিয়ে নববী মানহাজ অনুসারে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

তথ্যসূত্র:
======
১. Kazakh regime forces are shooting at people in Almaty city last night-
https://tinyurl.com/2p86utka

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন