কর্ণাটকে সন্ত্রাসী বজরং দলের হামলায় ১৮ বছর বয়সী মুসলিম যুবক খুন

মাহমুদ উল্লাহ

0
457

ভারতের কর্ণাটকের বেল্লারে হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী বজরং দলের সদস্যদের হামলায় গুরুতর আহত একজন ১৮ বছর বয়সী মুসলিম যুবক গত ২১ জুলাই বৃহস্পতিবার হাসপাতালে মারা যায়। নিহত মুসলিম যুবকের নাম মাসুদ।

১৯ জুলাই রাতে কালাঞ্জা গ্রামের বিষ্ণুনগরে আট হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীদের একটি দল মাসুদের ওপর হামলা চালায়। হিন্দু সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত মুসলিম কেরালার কাসারগোডের মোগরাল পুথুর বাসিন্দা। হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা তাকে মারধরের এক পর্যায়ে সোডার বোতল দিয়ে মাথায় আঘাত করে। হামলার পরে হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা তাকে মৃত ভেবে ফেলে যায়। হামলাকারী সেই হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা হল সুনীল, সুধীর, শিব, সাধাশিব, রঞ্জিত, অভিলাষ, জিম রঞ্জিত ও ভাস্কর।

ঘটনার সূত্রপাত হয়, মাসখানেক আগে সুলিয়ার কালাঞ্জায় নানার বাড়িতে আসা মাসুদ (১৮) দিনমজুরের কাজ করত। তিনি একদিন রাস্তায় একটি দোকানে যান, ঘটনাক্রমে সেখানে একে অপরের সাথে ধাক্কা খাওয়ার তুচ্ছ কারণে হিন্দু সুধীর ও মাসুদের মাঝে ঝগড়া হয়।

সেই সামান্য ঝগড়ার কারণে ১৯ শে জুলাই রাতে হিন্দুত্ববাদী বজরং দলের আট সন্ত্রাসী- সুনীল, সুধীর, শিব, সাধাশিব, রঞ্জিত, অভিলাষ, জিম রঞ্জিত এবং ভাস্কর-মাসুদকে নির্মমভাবে মারধর করে। শেষে মৃত্যু নিশ্চিত করতে পাষাণ্ডু অভিলাষ সোডার বোতল দিয়ে মাসুদের মাথায় আঘাত করে। পরে মৃত ভেবে একটি কূপের কাছে অচেতন অবস্থায় ফেলে যায়।

স্বানীয় মুসলিমরা মাসুদকে ম্যাঙ্গালুরুর একটি বেসরকারী হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে চিকিৎসা করা জন্য ভর্তি করে কিন্তু আঘাতের তীব্রতার কারণে সে মারা যায়।

হিন্দুত্ববাদী ভারতে মুসলিমদের জান মালের কোন নিরাপত্তা নেই। হিন্দুত্ববাদীরা সামান্য অজুহাতেই মুসলিমদের উপর হামলা চালাচ্ছে, খুন করছে। এ অবস্থায় নিজেদের জান মাল রক্ষায় মুসলিমদেরকে দলাদলি ভুলে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্লেষক উলামায়ে কেরাম।


তথ্যসূত্র:
——-
1. 18-year-old Muslim youth dies in Bajrang Dal attack in Karnataka
http://lnnk.in/dJgp

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন