ফায়ারিং স্কোয়াডে ৬ মার্কিন গুপ্তচরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করলো আশ-শাবাব

ত্বহা আলী আদনান

1
1221
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

পূর্ব আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ায় সামরিক আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে দখলদার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আর গুপ্তচর নেটওয়ার্কের মাধ্যমে তাদেরকে এই কাজে সহায়তা করছে দেশটির কিছু গাদ্দার।

ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন যুদ্ধের ময়দানে ক্রুসেডার বাহিনী ও তাদের মিত্রদের পরাজিত করার পাশাপাশি বুদ্ধিবৃত্তিক যুদ্ধের ময়দানেও পরাজিত করে চলছেন। সেই সূত্র ধরেই মুজাহিদগণ গড়ে তুলেন একটি গোয়েন্দা বিভাগ। যারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও গাদ্দার প্রশানের গুরত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থার গুপ্তচরদের বন্দী করতে বড় ভূমিকা পালন করছেন।

সম্প্রতি বিভিন্ন স্থান থেকে এমন বেশ কিছু গুপ্তচরকে বন্দী করতে সক্ষম হয়েছেন হারাকাতুশ শাবাবের গোয়েন্দা বিভাগ। এদেরকে শরয়ী আদালতে হস্তান্তর করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের তদন্ত শুরু করা হয়। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাদেরকে শাস্তির মুখোমুখি করেন কাজী সাহেব।

গতকাল ১৩ সেপ্টেম্বর এমনই ৬ গুপ্তচরের বিষয়ে শরয়ী আদালত তার চুড়ান্ত রায় ঘোষণা করেছে। যাদের বিষয়ে এই অভিযোগ প্রমাণিত হয়, তারা ক্রুসেডার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে সোমালিয়ায় গুপ্তচরবৃত্তির কাজ করতো। তারা সোমালিয়ায় একাধিক ড্রোন হামলা এবং মুজাহিদদের শহীদ করার জন্য দায়ী ছিলো।

অপরাধীরা নিজেদের অপরাধ স্বীকার করার পর, তাদেরকে যুবা রাজ্যের সাকো শহরের একটি মাঠে একত্রিত করা হয়। যেখানে হারাকাতুশ শাবাব মুজাহিদিন জনসম্মুখে ফায়ারিং স্কোয়াডে তাদের মৃত্যুদণ্ড কর্যকর করেন।

এভাবেই পূর্ব আফ্রিকার জমিনকে ইসলাম ও মুসলিমের সকল প্রকাশ্য এবং অপ্রকাশ্য শত্রু থেকে মুক্ত করতে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন হারাকাতুশ শাবাবের বীর মুজাহিদিন। মুসলিম জনসাধারণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং মুসলিম ভূমিকে দখলদারমুক্ত করতে তাঁরা পার করছেন শত নিরঘুম রাত।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধব্রেকিং নিউজ || ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি বাহিনীর বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনিদের ৫৫ হামলা
পরবর্তী নিবন্ধ৮ দিনে ৭ হামলাঃ মুজাহিদদের অগ্রযাত্রায় বিপর্যস্ত বুরকিনান সেনাবাহিনী