টোগোতে আবারো আল-কায়েদার হামলা: ১৭ এর অধিক সৈন্য নিহত

আলী হাসনাত

1
561
অভিযানের জন্য প্রস্তুত জেএনআইএম মুজাহিদিন

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ টোগোতে গাদ্দার সামরিক বাহিনীর উপর সফল হামলা চালিয়েছেন আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। এতে দেশটির অন্তত ১৭ সৈন্য প্রাণ হারিয়েছে বলে জানা গেছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বৈশ্বিক ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী আল-কায়েদার পশ্চিম আফ্রিকার সহযোগী শাখা জামা’আত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন (জেএনআইএম) পশ্চিম আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ইসলাম বিরোধী গাদ্দার সামরিক বাহিনীর উপর হামলার পরিধি বাড়িয়েই যাচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় টোগোর উত্তরাঞ্চলেও সেনাবাহিনীর উপর নতুন করে হামলা চালিয়েছে আল-কায়েদা।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে যে, গতকাল ২৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার, টোগোর উত্তর সাভানেস অঞ্চলের কেপেন্ডজাল প্রদেশে টোগোলিজ সেনা বাহিনীর উপর হামলা চালিয়েছেন জেএনআইএম-এর বীর যোদ্ধারা। প্রতিরোধ যোদ্ধাদের উক্ত হামলায় অন্তত ১৭ সেনা নিহত হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র বলছে, রাজ্যটির তিওলি এলাকায় অবস্থিত টোগোলিজ সেনাবাহিনীর “ফরোয়ার্ড অপারেশন” ঘাঁটিতে উক্ত হামলাটি চালানো হয়েছে। যেখানে জেএনআইএম-এর বিশাল একটি সশস্ত্র দল ভারী অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে ঘাঁটিটি অবরোধ করেন, এবং চতুর্দিক থেকে টোগোলিজ সেনাবাহিনীকে টার্গেট করে আক্রমণ শুরু করেন তাঁরা। এতে এখন পর্যন্ত ১৭ সেনা নিহত হওয়ার তথ্য থাকলেও, এই সংখ্যা আরও বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। কেননা হামলায় আরও অনেক সেনা সদস্য গুরুতর আহত হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আল-কায়েদা যোদ্ধারা টোগো এবং বেনিনে ছড়িয়ে পড়েছেন। বিশেষ করে বুরকিনা ফাসোর দক্ষিণ সীমান্ত থেকে নিজেদের প্রভাব বিস্তার করে চলেছে আল-কায়েদা। যার প্রতিক্রিয়া হিসাবে, টোগো প্রশাসন বুরকিনা ফাসো সীমান্তের উত্তর অংশে গত মার্চ মাস থেকে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে। এই জরুরি অবস্থার ঘোষণার মধ্যেই এখন পর্যন্ত সাভানেস অঞ্চল সহ সীমান্ত অঞ্চলগুলিতে সামরিক বাহিনীর উপর বেশ কিছু সফল হামলা চালিয়েছেন আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন