বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলার পাশাপাশি কেনিয়ায় শাবাবের অভিযান

- নজরুল ইসলাম

0
400
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

পূর্ব আফ্রিকায় চলমান বন্যা পরিস্থিতিতে সোমালিয়ার শারিয়া শাসিত অঞ্চলগুলোতে দুর্গম অঞ্চল থেকে মানুষকে উদ্ধারের পাশাপাশি বন্যার্তদের কাছে প্রয়োজনীয় ত্রান ও ঔষধ পৌঁছে দিচ্ছেন হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন। আর এমন প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলা করেও পার্শ্ববর্তী দেশ কেনিয়ায় দ্বীন কায়েমের জিহাদের ফরজ আঞ্জাম দেওয়ার কাজে পিছপা হচ্ছেন না শাবাব প্রতিরোধ যোদ্ধারা।

ডিসেম্বরের শুরুতে ৪ দিনের মধ্যেই দখলদার কেনিয়ান সামরিক বাহিনীর উপর পৃথক ৪টি সামরিক অভিযান পরিচালনা করেছেন হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন। এর মধ্যে গত জুমাদুল উলার ১৫ তারিখ বৃহস্পতিবার এক দিনেই চালানো হয়েছে দুটি অভিযান।
শাবাব মুজাহিদিন পরিচালিত অভিযানগুলোতে কেনিয়ান সামরিক বাহিনী জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে।

গত ১৫ জুমাদাল উলা  বৃহস্পতিবার, আশ-শাবাবের প্রতিরোধ যোদ্ধারা কেনিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ জারিসার বোয় এবং অ্যালেন গাগার অঞ্চলে কেনিয়ার বাহিনীর দুটি সামরিক ঘাঁটিতে পৃথক দুটি অভিযান পরিচালনা করেছেন। সেখানে একটি ঘাঁটি সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেওয়া হয় এবং অপর ঘাঁটির কিছু অংশে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। উভয় অপারেশনে কেনিয়ার বেশ কয়েকজন সৈন্য হতাহত হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কেবল দু’জন সৈন্য নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।

এরপর গত ২ ডিসেম্বর শনিবার, জারিসা প্রদেশের “মুডি ক্রাই” গ্রামের নিকটবর্তী কেনিয়ার সামরিক ঘাঁটিতে শাবাব মুজাহিদিনের অভিযানে অসংখ্য শত্রুসেনা হতাহত হয় বলে জানা গেছে। অভিযানে শত্রুবাহিনীর ব্যবহৃত একটি বুলডোজারও ধ্বংস হয়ে যায়।

এর পরদিন ৩ ডিসেম্বর রবিবার, জারিসা প্রদেশের “হরমাল্ড” জেলার polo4 এলাকার কেনিয়ার একটি সামরিক ঘাঁটিতে আশ-শাবাবের ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধা রেইড করেন। সেখানে সংঘর্ষে ৩ কেনিয়ান সৈন্য নিহত এবং একজন সৈন্য আহত হয়। প্রতিরোধ যোদ্ধারা পুরো সামরিক ঘাঁটিটি এবং তাতে থাকা শত্রুর ব্যবহৃত সকল সামরিক সরঞ্জাম ধ্বংস করে দিতে সক্ষম হন, আলহামদুলিল্লাহ্‌।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধসেনা ঘাঁটিতে জেএনআইএমের অভিযানে ৮২ বুরকিনান সেনা হতাহত
পরবর্তী নিবন্ধবাবরি মসজিদ ধ্বংসের ৩১ বছর এবং আমাদের অনুভূতি