খান ইউনিসে গণকবরে ২০০ লাশ

0
82

ফিলিস্তিনি নাগরিক প্রতিরক্ষা বিভাগ গত ২১ এপ্রিল রবিবার জানিয়েছে যে, তারা দক্ষিণ গাজা উপত্যকার খান ইউনিসের নাসের হাসপাতালের আঙ্গিনায় ইসরায়েলি বাহিনী কর্তৃক গণকবরে দাফন করা শত শত ফিলিস্তিনিদের মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছেন।

স্থানীয় সময় রোববার দুপুর পর্যন্ত মেডিকেল কম্পাউন্ডের দুটি গণকবর থেকে অন্তত ২০০ টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। অনুসন্ধান অব্যাহত থাকায় উদ্ধারকারীরা অনুমান করেছেন যে, সেখানে কমপক্ষে ৪০০ টি মৃতদেহ রয়েছে।

গাজার সরকারী মিডিয়া অফিস বলেছে যে, কিছু মৃতদেহ পাওয়া গেছে যাদের শিরচ্ছেদ করা হয়েছে এবং তাদের চামড়া ও অঙ্গ পর্যন্ত অপসারণ করা হয়েছে। মিডল ইস্ট আই স্বাধীনভাবে মৃতদেহের রিপোর্টে উল্লেখিত অবস্থা যাচাই করতে পারেনি। তবে আল জাজিরার মতে, শিশু, বৃদ্ধ মহিলা এবং যুবকদের মৃতদেহ পাওয়া গেছে।

আল জাজিরার প্রতিনিধি হানি মাহমুদ রোববার খান ইউনিস থেকে জানিয়েছেন, হাসপাতালের আঙিনায় বেসামরিক প্রতিরক্ষা সদস্য এবং প্যারামেডিকদেরকে ইসরাইলি দখলদার বাহিনী এই গণকবরে দাফন করেছে। লাশগুলোর মধ্যে বয়স্ক নারী, শিশু ও যুবক রয়েছে।

উদ্ধারকারী দল বলেছে যে, কিছু মৃতদেহ তাদের পিঠের পিছনে হাত বাঁধা ছিল, তাদের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে এবং ঘটনাস্থলেই কবর দেওয়া হয়েছে। গণকবরের খবর ছড়িয়ে পড়লে, নিখোঁজ পরিবারের সদস্যদের খুঁজে পাওয়ার আশায় অনেক লোক হাসপাতালে পৌঁছেছিল।

ইসরায়েলি সৈন্যরা খান ইউনিসের তিন মাসের আক্রমণ শেষ করার কয়েক সপ্তাহ পরে গণকবরগুলি আবিষ্কৃত হয়েছিল। ঐ সময় স্থল বাহিনী বারবার নাসের হাসপাতালে আক্রমণ করেছিল। গাজার দ্বিতীয় বৃহত্তম এবং দক্ষিণ গাজার স্বাস্থ্য ব্যবস্থার “মেরুদন্ড” হয়ে উঠা এই হাসপাতালটিতে ফেব্রুয়ারি মাসে ধ্বংসাত্মক ইসরায়েলি অভিযানের পর পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। এসময় ১০,০০০ মানুষ মেডিকেল কমপ্লেক্সেটিতে আশ্রয় নিয়েছিল।

জানুয়ারিতে এক সপ্তাহব্যাপী অবরোধের পর সেনাবাহিনী দুবার হাসপাতালে হামলা চালায়, সেই সময় ২০০ জনকে আটক করা হয়েছিল এবং ভবনটিতে আশ্রয় নেওয়া শত শত রোগী এবং বাস্তুচ্যুত লোককে জোরপূর্বক সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

মেডিকেল স্টাফদেরকে ইসরায়েলি বাহিনী জোড়পূর্বক নগ্ন করে, মারধর করে এবং নানানভাবে অপমান করে। এসময় ইসরায়েলি স্নাইপারদের দ্বারা অনেক স্বাস্থ্যকর্মী এবং রোগী গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়।

মার্চ মাসে, বিবিসি যাচাইকৃত ফুটেজ প্রকাশ করে, যাতে অভিযানের পর কমপ্লেক্সের ভিতরে আটক ও হাঁটু গেড়ে বসে থাকা লোকজনকে দেখা যাচ্ছে। অবরোধের সময় কর্মীদের এবং রোগীদের লক্ষ্য করে ফায়ার করার ২১টি দৃষ্টান্ত নথিভুক্ত ফুটেজও প্রকাশ করেছে বিবিসি।


তথ্যসূত্র:
1. War on Gaza: Hundreds of bodies unearthed in Khan Younis hospital mass graves
https://tinyurl.com/5n6b8pck

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধসোমালিয়ায় শাবাবের পাল্টা আক্রমণে ৪১ শত্রু সেনা হতাহত
পরবর্তী নিবন্ধদুই মুসলিম ভাইকে হত্যার প্রতিবাদে ফরিদপুরে সড়ক অবরোধ, পুলিশের হামলায় হতাহত অনেকে