বিয়ের আসর থেকে কনেকে অপহরণচেষ্টা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগ নেতার

0
355
বিয়ের আসর থেকে কনেকে অপহরণচেষ্টা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগ নেতার

পিরোজপুর শহরে ওয়ার্ডের এক বাড়িতে পিস্তল ও চাকু নিয়ে ফিল্মি কায়দায় বিয়ের আসর থেকে কনেকে অপহরণের চেষ্টার চালিয়েছে জেলা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক। শুক্রবার বিকেলে শহরের শিক্ষা অফিস সড়কের আওয়ামী লীগের পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেনের বাসায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শনিবার ওই ছাত্রলীগ নেতা ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কনের বাবা ও পিরোজপুর পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন। অভিযোগে অপর নামীয় আসামিরা হলেন শহরের ধুপপাশা এলাকার আবুল কালামের দুই ছেলে আব্দুল আলিম ও মো. শাওন।

অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণে জানা যায়, শুক্রবার বাদ আছর দেলোয়ার হোসেনের মেজ মেয়ের (২২) আকদ অনুষ্ঠান ছিল। বিকেলে জেলার ইন্দুরকানী উপজেলার বরপক্ষ দেলোয়ারের বাড়িতে বরসহ আত্মীয়-স্বজন নিয়ে আসেন। আকদ অনুষ্ঠান শুরুর আগেই জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক কিছু সন্ত্রাসী নিয়ে তাদের বাড়িতে ঢুকে অনুষ্ঠান থেকে তার মেয়েকে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় মেয়ে ফারহানা আক্তার আইভিকে জাপটে ধরে তার শ্লীলতাহানী ঘটায় এবং পিস্তল বের করে ভয় দেখায়।

তখন উপস্থিত আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীরা বাধা দিলে তারা মেয়েকে অপহরণ করতে না পেরে বর পক্ষকে নানা হুমকি দেয়। এ ঘটনার পর গ্রাম থেকে আসা বর পক্ষের লোকজন ভয়ে বিয়ে বন্ধ করে তাদের বাড়িতে চলে যান।

এ সময় অনিরুজ্জামান অনিক তার সঙ্গে থাকা আব্দুল আলীম ও শাওনকে নিয়ে কনের বাবাকে হুমকি দিয়ে বলে, তার মেয়েকে আবুল কালামের ছেলে আব্দুল আলীম ছাড়া অন্য কারও সঙ্গে বিয়ে দেওয়া যাবে না। যদি বিয়ে দেওয়া হয় বাসর ঘরে মেয়ের স্বামীকে হত্যা করে লাশ গুম করা হবে এবং তার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হবে। আমাদের সময়

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন