খোরাসান | হেলামান্দের রাজধানী অবরোধ , ৪১টি চেকপোস্ট নিয়ন্ত্রণে নিল তালিবান

1
867
খোরাসান | হেলামান্দের রাজধানী অবরোধ , ৪১টি চেকপোস্ট নিয়ন্ত্রণে নিল তালিবান

তালেবানের চতুর্মুখী হামলায় এলাকা ও চেকপোস্ট ছেড়ে পালাচ্ছে মুরতাদ কাবুল বাহিনী। দেশটির হেলামান্দের প্রাদেশিক রাজধানী অবরোধ এবং ৩৮টি চেকপোস্ট নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে তালেবান।

ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তানের জানবায তালেবান মুজাহিদিন গত ১লা মে থেকে আফগানিস্তান জুড়ে মুরতাদ কাবুল বাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যাপকভাবে সামরিক অভিযান চালাতে শুরু করেছেন। গুরুত্বপূর্ণ শহর ও প্রাদেশিক রাজধানীগুলোতে চুক্তির কারণে অভিযান বন্ধ থাকলেও গত ১লা মে চুক্তির সময় সীমা শেষ হয়। এরপর থেকেই তালেবান গুরুত্বপূর্ণ শহর ও প্রাদেশিক রাজধানীগুলোতে হামলার তীব্রতা বাড়িয়েছেন।

তালেবানদের সূত্রগুলো জানিয়েছে যে, শুধু ৪ মে আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশের নাহর-সিরাজ ও নাওয়াহ জেলা ২ টিতেই তালেবান মুজাহিদগণ ২৪ ঘণ্টার লড়াইয়ে কাবুল বাহিনী থেকে বিজয় করে নিয়েছেন ৩৮টি চেকপোস্ট ও এসব চেকপোস্টের অধীনে থাকা বিস্তীর্ণ এলাকা। এসময় মুজাহিদদের তীব্র হামলায় নিহত হয়েছে মুরতাদ বাহিনীর ৫৯ এরও বেশি সৈন্য, আহত হয়ে ময়দান ও চেকপোস্ট ছেড়ে পালিয়েছে আরো শত শত মুরতাদ সৈন্য। মুজাহিদগণ গনিমত লাভ করেছেন কয়েক হাজার গুলা-বারুদ ও ভারি ভারি অগণিত যুদ্ধাস্ত্র।

বিপরীতে মুরতাদ বাহিনীর সাথে এই লড়াইয়ে শাহাদাত বরণ করেছেন ৫ জন মুজাহিদ এবং আহত হয়েছে আরো ৮ জন মুজাহিদ।
تقبلهم الله تعالی

এদিকে নাহর-সিরাজ জেলার তাবেলা অঞ্চল থেকে কাবুল প্রশাসনের ৩ টি পোষ্টের সমস্ত কর্মী, ১২ সৈন্য, ১৬ পুলিশ সদস্য তাদের অস্ত্র এবং গোলাবারুদ নিয়ে ইসলামী ইমারতের তালেবান মুজাহিদিনের সাথে যোগদান করেছ।

এসময় তারা ২৯টি ভারী অস্ত্রের পাশাপাশি কয়েক হাজার গোলা-বারুদ সাথে করে নিয়ে এসেছিল এবং তা মুজাহিদদের কাছে হস্তান্তর করেছে।

সূত্র আরো জানিয়েছে যে, তালেবান মুজাহিদগণ হেলামান্দের প্রাদেশিক রাজধানী গতকাল থেকে পরিপূর্ণরূপে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন। এছাড়াও দুটি জেলার ৯৯.৯% এলাকাও নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন মুজাহিদগণ। জেলাগুলোতে লড়াই এখনো চলমান রয়েছে।

 

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন