কর্মস্থলে ফেরা মানুষের পথে পথে ভোগান্তি

0
944
কর্মস্থলে ফেরা মানুষের পথে পথে ভোগান্তি

ঈদের ছুটি শেষ। এবার ফেরার পালা। কর্মস্থলে ফেরার পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ভালুকা এলাকায় ঢাকাগামী কর্মজীবী মানুষের পথে পথে ব্যাপক দুর্ভোগ ও হয়রানির শিকার হতে দেখা গেছে।

বাসযোগে আসার পথে ভালুকা ব্রিজের দক্ষিণ পাশে ভরাডোবা হাইওয়ে থানা পুলিশ যাত্রীবোঝাই বাসগুলো ময়মনসিংহের দিকে ফিরিয়ে দিচ্ছে। এতে রাস্তার দুই পাশে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

কিছু কিছু যাত্রী বাস থেকে নেমে কিছু দূর হেঁটে গিয়ে অটোরিকশা, সিএনজি, পিকআপযোগে ৪-৫ গুণ ভাড়া বেশি দিয়ে মাস্টারবাড়ি, মাওনা চৌরাস্তা, গাজীপুর চৌরাস্তা যাচ্ছেন।

গাজীপুরে কর্মরত পোশাক কারখানা শ্রমিক হাবিব জানান, আমি শেরপুর থেকে ৫০০ টাকা চুক্তি করে গাজীপুর চৌরাস্তায় যাচ্ছিলাম। ভালুকায় আসার পর পুলিশ বাসটি আটকে দেয়ার পর বেশ কিছু পথ হেঁটে এসে বিকল্প পরিবহন খুঁজছি।

বরিশালে ঈদ উদযাপন শেষে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার কর্মস্থলে ফিরতে পথে পথে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা। স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে যাত্রী বহন ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ে চরম বিপাকে পড়েছেন কর্মস্থলগামী জনসাধারণ।

বরিশালের বাস টার্মিনাল নথুল্লাবাদ ও রূপাতলীতে মঙ্গলবারও ছিল কর্মস্থলমুখী মানুষের ভিড়। দূরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ থাকায় আন্তঃজেলায় চলাচলরত বাস, সিএনজি, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাসে গাদাগাদি করে যাত্রী বহন করছে। এই সুযোগে যান চালকরা কয়েকগুণ ভাড়া আদায় করে নিচ্ছে।

বরিশাল থেকে রাজধানীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেওয়া বেসরকারি চাকরিজীবী মোশাররফ হোসেন জানান, সড়কে যানবাহন কম থাকার সুযোগে যানচালকদের দৌরাত্ম্য বেড়েছে। দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ থাকায় ভেঙে ভেঙে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। ভাড়াও দিতে হচ্ছে কয়েকগুণ বেশি। এছাড়া কোনো বাহনই স্বাস্থ্য নিরাপত্তা বিধি মেনে চলাচল করছে না। গাদাগাদি করে যাত্রী বহন করায় স্বাস্থ্যঝুঁকিও বাড়ছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন