মুসলিম নিধন ও ইসলাম বিদ্বেষের পুরস্কার হিসেবে মনিরুল ও বনজ কুমারসহ ৭ পুলিশের পদন্নোতি

মাহমুদ উল্লাহ্‌

0
1581
মুসলিম নিধন ও ইসলাম বিদ্বেষের পুরস্কার হিসেবে মনিরুল ও বনজ কুমারসহ ৭ পুলিশের পদন্নোতি

বাংলাদেশি মুসলিমদের বিভিন্ন ট্যাগ লাগিয়ে, নাটক সাজিয়ে, সাদা পোষাকে তুলে নিয়ে পাশবিক নির্যাতন, স্থার্থ উদ্ধার না হলে হত্যা করা। এদেশে হিন্দুত্ববাদীদের অবস্থান পাকাপোক্ত করা। মুসলিমদের গুম,খুন করে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করা পুলিশ বাহিনীর নিত্য দিনের কাজ। এসব কাজের পুরস্কার হিসেবে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত আইজিপি) গ্রেড-২ পদে ৭ জনকে পদোন্নতি দিয়েছে হিন্দুত্ববাদী ভারতের দালাল হাসিনার কথিত আওয়ামী সরকার।

গত ২২ জানুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব আনোয়ারুল ইসলাম সরকার স্বাক্ষরিত এক স্মারকে এ তথ্য জানানো হয়।
অতিরিক্ত আইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্তরা হল—পুলিশের বিশেষ শাখার প্রধান মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম। এই মনিরুলই কথিত কাউন্টার টেররিজম ইউনিট প্রতিষ্ঠা করেছিল এবং নবী অবমাননাকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারী ও ইসলামপ্রিয় যুবকদের গুম-গ্রেফতার ও হত্যায় সে ছিল সবচেয়ে বেশি তৎপর।

এছাড়া পদোন্নতি পাওয়া আরেক বিতর্কিত অফিসার হল পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পিবিআই’র প্রধান হিন্দুত্ববাদী বনজ কুমার মজুমদার।

উল্লেখ্য, এই তালিকার প্রায় সকল অফিসারেরই ভারত প্রীতি ও ইসলাম বিদ্বেষের রেকর্ড খুব শক্তিশালী। গুঞ্জন আছে যে, ভারত ও র’এর সরাসরি সুপারিশেই তাদের এই পদোন্নতি হয়ে থাকতে পারে।

মুসলিমদের শাসন ব্যবস্থা না থাকায় এই বর্বর পুলিশ বাহিনী একের পর এক অন্যায়ভাবে গুম, খুন, চাঁদাবাজি,রাহাজানী করে যাচ্ছে। অনেক মুসলিমদেরকে বিনা অপরাধে কারাগারে আটক করে রেখেছে। এসমস্ত দালালদের হাতে থেকে কোন মুসলিমই নিরাপদ নয়।
আর এসব সন্ত্রাসী অফিসারদেরকে পদোন্নতি সহ নানা প্রেরণা দিয়ে যারা দিন দিন মুসলিমদের জান-মাল-ইজ্জত ও আব্রুর নিরাপত্তাকে আরো হুমকির মুখে ফেলে দিচ্ছে, সেই ভারতভক্ত দালাল রাজনৈতিক ও সরকারি হর্তাকর্তাদেরও মুখোশ উন্মোচন করে জনগণকে দ্বীনে হক্ব প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে শরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছেন উম্মাহ দরদী উলামাগণ।

তথ্যসূত্র:
—–
মনিরুল ইসলাম, বনজ কুমারসহ পুলিশের অতিরিক্ত আইজি হলেন ৭ জন
https://tinyurl.com/38c4vsz5

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন